পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

রাজধানীতে নিষিদ্ধ ঘোষিত আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের দুই দুর্ধর্ষ জঙ্গি গ্রেপ্তার

মাসুদ হাসান রিদম,ঢাকা: গতকাল ২৬ জুন ০৮.১৫ হতে ০৯.৩০ টা পর্যন্ত রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানার ফরিদাবাদ মাদ্রাসা এলাকা  ও কামরাঙ্গীচর থানার আল আরাফা ইসলামীয়া মাদ্রাসায় অভিযান পরিচালনা করে  পুরস্কার ঘোষিত নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিম (এবিটি) এর ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা ও অপরাধতথ্য (দক্ষিণ) বিভাগ। গ্রেফতারকৃতরা হল- ১। মাওলানা মোঃ নাইম ওরফে  সাইফুল ইসলাম ওরফে সাদ (৩০) ও ২। সোহেল আহম্মেদ ওরফে সোহেল (২৮)।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মিডিয়া শাখার উপ কমিশনার মাসুদুর রহমান জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে ব্লগার ও লেখক খুনের অভিযোগ রয়েছে। এর আগে তাদের ধরিয়ে দেয়ার জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেছে ডিএমপি। গভীর রাতে তাদের কামরাঙ্গির চর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গত ১৩ জুন সোমবার রাত ০৯.২৫ টায় রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে নিষিদ্ধ ঘোষিত আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের -সৈয়দ মোহাম্মদ মোজাহিদুল ইসলাম ও আরিফুল ইসলাম সোলায়মান ওরফে আরাফাত দ্বয়কে গ্রেফতার করে ডিএমপি’র গোয়েন্দা ও অপরাধতথ্য (দক্ষিণ) বিভাগ। এ সংক্রান্তে কামরাঙ্গীরচর থানায় সন্ত্রাস বিরোধী আইন ২০০৯ (সংশোধনী/২০১৩) এর ৬ (১) (ক) (অ) (উ)/ ৬ (২) (অ)/৯ এ মামলা রুজু করা হয়। উক্ত মামলার তদন্তে ও গ্রেফতারকৃত আসামীদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে উল্লেখিত এই দুই এবিটি সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। আসামী (১) মোঃ নাইম ওরফে সাইফুল ইসলাম ওরফে সাদ (২) সোহেল আহম্মেদ ওরফে সোহেলকে জিজ্ঞাসাবাদে জানান তারা ঢাকা অঞ্চলের এবিটির দাওয়াতী শাখার দায়িত্বশীল পর্যায়ের নেতা।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানায়, তারা এবিটির শীর্ষ এক নেতার নির্দেশে সাংগঠনিক মিটিং এর উদ্দেশ্যে ঘটনাস্থলে আসে। নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠনটির (এবিটি) কার্যক্রম সমন্ধে তারা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করছে। আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদ ও উক্ত নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠনের অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

উল্লেখ্য যে, গত ১৩ জুন -সৈয়দ মোহাম্মদ মোজাহিদুল ইসলাম ও আরিফুল ইসলাম সোলায়মান ওরফে আরাফাত এর দেয়া তথ্য মতে ১৫ জুন  মোঃ সুমন হোসেন পাটোয়ারী @ সাকিব @ সিহাব @ সাইফুল (২০) কে গ্রেফতার করা হয়। তার দেয়া তথ্য মতে ১৯ জুন আনসার উল্লাহ বাংলা টিমের সামরিক শাখার শীর্ষ নেতা শরিফুল ওরফে সাকিব ওরফে শরিফ ওরফে সালেহ ওরফে আরিফ ওরফে হাদী-১ পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়।
ডিসি, ডিবি(দক্ষিণ) মোঃ মাশরুকুর রহমান খালেদ এর নির্দেশে, অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার রাজীব আল মাসুদ এর সার্বিক তত্তাবধানে, সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার হাসান আরাফাত বিপিএম এর নেতৃত্বে অভিযানটি পরিচালিত হয়।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *