পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

লোকসভা নির্বাচন আসলে মোদি-মমতার লড়াই

ভারতের লোকসভা নির্বাচন আসলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লড়াই, বিজেপির বিভাজনের রাজনীতি থেকে দেশকে মুক্তি দেওয়ার লড়াই। এই মন্তব্য তৃণমূল দলের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়ার একটি সভায় সোমবার তিনি বলেন, ‘দেশ একটি সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে রয়েছে, দেশকে বিজেপির হাত থেকে রক্ষা করতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতেই হবে।’

বিজেপির বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছড়িয়ে দেবার অভিযোগ তুলে অভিষেক বলেন, ‘আমাদের নেত্রী তাদের ক্ষমতাচ্যুত করার ডাক দিয়েছেন। তার পাশে দাঁড়ানো আমাদের কর্তব্য।’

বিজেপিকে আক্রমণ করার পাশাপাশি দলের পুরনো কর্মীদের যথাযোগ্য সম্মান দেয়ার বার্তাও দেন অভিষেক। তিনি বলেন, যারা ভালো কাজ করবেন আগামী দিনে দল তাদের পাশে থাকবে, গুরুতর দায়িত্বও দেবে। রাজনৈতিক মহলের অনুমান তৃণমূলের বেশ কিছু নেতা ও কর্মী যথাযোগ্য সম্মান না পাওয়ার অভিযোগ তুলে দল ছেড়েছেন। এমতাবস্থায় দলের সমস্ত স্তরের কর্মীদের বার্তা দিলেন ডায়মন্ডহারবারের ওই সাংসদ।

বাঁকুড়ার আসনে এবার প্রার্থী বদল হয়েছে। এই আসনে গতবার তৃণমূলের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন তারকা প্রার্থী মুনমুন সেন। সিপিএমের বাসুদেব আচারিয়াকে পরাজিত করে সংসদে যান মুনমুন। তবে এবার তার আসন বদলে দেওয়া হয়েছে। এবার তিনি লড়ছেন আসানসোল থেকে। অন্যদিকে রাজ্য মন্ত্রিসভার প্রবীণতম সদস্য সুব্রত মুখোপাধ্যায় লড়ছেন এই কেন্দ্র থেকে।

মুনমুনের প্রার্থী হওয়ার কথা জানতে পেরে টুইট করেছিলেন বাবুল। তাতে তিনি লিখেছেন, ‘মমতাজি আমার বিরুদ্ধে চিরকাল সেনসেশেনাল প্রার্থী দাঁড় করান। ২০১৪ সালে দোলা সেন আর এবার মুনমুন সেন!’

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে প্রায় ৬০ হাজার ভোটের ব্যবধানে জিতেছিলেন বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়।

সূত্র: এনডিটিভি

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *