পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

জাদুঘর থেকে ঐতিহাসিক রত্নভান্ডার চুরি

জার্মানির একটি মিউজিয়ামের বাক্স ভেঙে খুবই সাধারণ পদ্ধতিতে হীরার অলঙ্কার চুরি করেছে চোরেরা। রাতের আঁধারে বাক্সগুলো ভেঙে ইউরোপের অন্যতম বৃহৎ রত্নভাণ্ডার নিয়ে গেছে হীরা চোরেরা।

জার্মানির ড্রেসডেনের গ্রিন ভল্ট মিউজিয়াম থেকে কাঁচ ভেঙে তারা অমূল্য রত্নালঙ্কার চুরি করেছে। খুবই সাধারণ পদ্ধতি তালা ভাঙা ও চুরি করা হয়।

আর্ট রিকভারি ইন্টারন্যাশনাল এর ক্রিস্টোফার মারিনেল্লো বলেন, চোরেরা স্বর্ণালঙ্কার চুরি করতে চায় কারণ তারা এগুলো দ্রুত বিক্রি করতে পারে। এগুলো টুকরো টুকরো করে ভেঙে ফেলা যায় এবং ধরা পড়ার ভয় কম থাকে।

অ্যালার্ম অচল করে পাওয়ার সাপ্লাইয়ে আগুন লাগিয়ে তারা এই চুরি করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ক্রিস্টোফার বলেন, যখন তারা প্রতিটি পাথর আলাদা করে ফেলবে অথবা হীরাগুলো পুনরায় কেটে ফেলবে তখন সেগুলো সনাক্ত করা প্রায় অসম্ভব একটা ব্যাপার।

তবে, চুরি হওয়া এ মালগুলো উদ্ধারের জন্য তারা যথেষ্ট তাড়ার মধ্যে আছেন বলে জানান ক্রিস্টোফার।

পুলিশের বড় অভিযান শুরু হয়েছে কিন্তু সংশয় রয়েছে যে, ১৭২৩ সালে অগাস্টার দ্যা স্ট্রং নির্মিত এসব নিদর্শন আর পাওয়া যাবে না।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সেদিন রাতে ওই জাদুঘরে কোনো প্রহরী ছিলো না।

এই অলঙ্কারগুলো থেকে পাথর আলাদা করে ফেললে এবং হীরাগুলো খুলে ফেললে চোরদের ধরা খুব কঠিন হবে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *