পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

স্বপ্নদলের ‘নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন স্মরণোৎসব ২০২০’

নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন-এর ১২তম প্রয়াণবার্ষিকী স্মরণে নাট্যসংগঠন স্বপ্নদল আগামী ১৪, ১৫ ও ১৭ জানুয়ারি বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজন করছে তিনদিনব্যাপী ‘নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন স্মরণোৎসব ২০২০’। নাট্যাচার্যকে নিয়ে স্বপ্নদলের নিয়মিত উৎসবের ২১তম এ আসরে স্বপ্নদলের নাট্যপ্রযোজনা ‘হরগজ’ ও ‘ত্রিংশ শতাব্দী’ মঞ্চায়ন ছাড়াও থাকছে সেমিনার, স্মরণ-শোভাযাত্রা, সমাধিতে পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ, নাট্যাচার্যের প্রতিকৃতি সহকারে শিল্পকলাচত্বর সজ্জা প্রভৃতি।

‘ঐতিহ্যবাহী নাট্য আর দ্বৈতাদ্বৈতবাদী শিল্পদর্শন, সেলিম আল দীনের সৃজন-আভায় নবরূপে দেয় দরশন’ স্লোগানে উৎসবের প্রথম দিন ১৪ জানুয়ারি নাট্যাচার্যের প্রয়াণদিবস সকালে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি থেকে স্বপ্নদলের বাসযোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে যাত্রা এবং সাড়ে ৯টায় ক্যাম্পাসস্থ পুরাতন কলাভবন থেকে নাট্যাচার্যের সমাধিসৌধ অভিমুখে স্মরণ-শোভাযাত্রা ও পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ। এরপর সন্ধ্যা ৭টায় এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটারে থাকবে স্বপ্নদল প্রযোজনা জাহিদ রিপনের নির্দেশনায় নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন-এর কালজয়ী সৃষ্টি ‘হরগজ’-এর মঞ্চায়ন। দ্বিতীয় দিন ১৫ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টায় স্টুডিও থিয়েটারে রয়েছে বাদল সরকারের মূলরচনা অবলম্বনে জাহিদ রিপনের রূপান্তর ও নির্দেশনায় স্বপ্নদলের দেশ-বিদেশে প্রশংসিত যুদ্ধবিরোধী গবেষণাগার প্রযোজনা ‘ত্রিংশ শতাব্দী’-র প্রদর্শনী।

উৎসবের সমাপনী দিন ১৭ জানুযারি বিকাল ৪টায় জাতীয় নাট্যশালার সেমিনার কক্ষে থাকছে ‘ঐতিহ্যবাহী বাঙলা নাট্যরীতি, দ্বৈতাদ্বৈতবাদী শিল্পতত্ত্ব ও সেলিম আল দীনের নাট্যদর্শন’ শীর্ষক বিশেষ সেমিনার। এত মূল আলোচনা উপস্থাপন করবেন জাহাঙ্গীননগর বিশ্ববিদ্যালয় নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান। মঞ্চসারথী আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন নাট্যজন ড. সোমা মুমতাজ, নাট্যজন মান্নান হীরা, নাট্যজন কামাল বায়েজীদ, নাট্যজন মাসুম রেজা, নাট্যজন সাধনা আহমেদ, নাট্যজন অপূর্ব কুমার কুন্ড প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেবেন স্বপ্নদলের প্রধান সম্পাদক জাহিদ রিপন।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন পূর্বে মানিকগঞ্জের হরগজে প্রলয়ংকারী টর্নেডোর অভিজ্ঞতা নিয়ে সেলিম আল দীন রচিত ‘হরগজ’ নাটকটি প্রায়-আণবিক বিস্ফোরণতুল্য ঐ ঝড়ের পরে প্রথম-উদ্ধারকারী দলের ভাঙ্গাভুবনের রূপক হরগজে গমন এবং আকৃতির জগৎ থেকে তাদের হঠাৎ নিরাকৃতির জগতে উপস্থিত হওয়ার প্রতিক্রিয়া ও পরিণতি নিয়ে আবর্তিত। অন্যদিকে পৃথিবীর ইতিহাসের সর্বপেক্ষা কলঙ্কজনক অধ্যায় হিরোশিমা-নাগাসাকিতে আণবিক বিস্ফোরণের বিয়োগান্তক ঘটনা এবং পরবর্তী যুদ্ধসমূহ নিয়ে বাদল সরকারের মূলরচনা অবলম্বনে জাহিদ রিপন রূপান্তরিত ‘ত্রিংশ শতাব্দী’ দর্শককে যুদ্ধ-সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ-অনাচারের বিপরীতে সিদ্ধান্তগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করে।

‘ত্রিংশ শতাব্দী’ প্রযোজনাটি ইতোমধ্যে ইংল্যান্ড, জাপান এবং ভারতের রাষ্ট্রীয় নাট্যোৎসবসহ ভারতের নানাস্থানে আমন্ত্রিত হয়ে প্রশংসিত হয়েছে। স্বপ্নদলের ‘হরগজ’ এবং ‘ত্রিংশ শতাব্দী’- দু’টি প্রযোজনাই ঐতিহ্যের ধারায় সেলিম আল দীন উদ্ভাবিত আধুনিক ‘বাঙলা নাট্যরীতি’-তে নির্মিত হয়েছে।

 

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *