পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

লাখো মুসল্লিতে অশ্রুসিক্ত তুরাগ তীর

টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত শেষ হয়েছে। এতে অংশ নিয়েছেন কয়েক লাখ মুসল্লি। এই আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে আজ শেষ হলো তাবলিগ জামাতের তিন দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। রোববার বেলা ১১টার একটু পরে শুরু হয় আখেরি মোনাজাত। যা চলে প্রায় ৪৫ মিনিট।

মোনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাদেশি মাওলানা হাফেজ মো. জোবায়ের। মোনাজাতে অংশ নিতে গোটা টঙ্গী জনস্রোতে পরিপূর্ণ হয়ে যায়। রাজধানীর উপকণ্ঠে টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরের অনুষ্ঠিতব্য এই আখেরি মোনাজাতে লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে রহমত ও হেদায়েত প্রার্থনা করেছেন। এ সময় গোটা তুরাগ তীর লাখো মুসল্লিতে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়ে।

এর আগে বাদ ফজর থেকে শুরু হয় আম বয়ান। এর পর শুর হয় হেদায়াতি বয়ান। একজন মুসলমান কিভাবে জীবন পরিচালনা করবে এর দিকনির্দেশনা দেয়া হয় এই বয়ানে। এরপরই অনুষ্ঠিত হয় আখেরি মোনাজাত। ‘আমিন, আমিন’ ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠে তুরাগ নদের তীর। অশ্রুসিক্ত নয়নে আল্লাহর কাছে আত্মসমর্পণে ব্যাকুল হয়ে উঠে লাখো মুসল্লি।

প্রথম পর্বের তিন দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমায় আখেরি মোনাজাতে বহির্বিশ্বের কয়েক হাজার মুসল্লিসহ ৩০ লাখের মতো ধর্মপ্রাণ মুসল্লি মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিশ্ব ইজতেমা প্রথম দফায় তিন দিনব্যাপী মুসলিম বিশ্বের এই দ্বিতীয় বৃহত্তম জমায়েতের শেষ দিনে আখেরি মোনাজাতে শামিল হতে শনিবার থেকে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা রাজধানী ঢাকা ছাড়াও পার্শ্ববর্তী গাজীপুর, নরসিংদী, ভৈরব, সাভার, মানিকগঞ্জ, কালিয়াকৈর, কালীগঞ্জ, শ্রীপুর, কাপাসিয়াসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ইজতেমা ময়দানে ট্রেন, বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস, জিপ, কার এবং নৌকাসহ নানা ধরনের যানবাহনে ছুটে আসেন। ভোর থেকেই রাজধানীর খিলক্ষেতস্থ বিশ্বরোড থেকে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। আজ ঢাকা থেকে আরও বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থাও করে রেলপথ বিভাগ।

এদিকে মোনাজাতে অংশ নিতে যাতে মুসল্লিদের সুবিধা হয় তার জন্যে আজমপুর, উত্তরাসহ আশপাশের ১০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে বিশেষ মাইকের ব্যবস্থাও করে জেলা প্রশাসন। মানুষের নিরাপত্তার জন্য নিচ্ছিদ্র ব্যবস্থাও নেয়া হয়।

 

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *