পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

সুজনের অনুপ্রেরণায় বিধ্বংসী শান্ত

বিপিএলে এবার নিজের প্রথম আট ম্যাচ মিলিয়ে ১১৫ রান করতে পেরেছিলেন শান্ত। অথচ শনিবার এক ইনিংসেই করলেন ১১৫! ৮ চার ও ৭ ছক্কায় ৫৭ বলে খেলা তার বিধ্বংসী ইনিংসে রান তাড়ার নতুন রেকর্ড গড়ে জেতে খুলনা টাইগার্স।

ঘরোয়া লীগেও বরাবর ভাল করেন তিনি। ইমার্জিং এশিয়া কাপেও ছিলেন দুর্দান্ত। যুব দলের হয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি রান করার রেকর্ডটি ছিল শান্তর। কিন্তু জাতীয় দলেই মাতাতে পারেননি এখনো।

তবে হারিয়ে যাননি তিনি।শান্তই বঙ্গবন্ধু বিপিএলে সেঞ্চুরি করলেন বাংলাদেশের সব ব্যাটসম্যানের আগে। অবিশ্বাস্য এই ঘুরে দাঁড়ানোর মূল কৃতিত্ব শান্ত দিলেন খালেদ মাহমুদকে, যার প্রেরণায় খুঁজে পেয়েছেন হারানো বিশ্বাস।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) শতক হাঁঁকানোর পর সংবাদ সম্মেলনে শান্ত বলেন, “সত্যি বলতে আমি অনেক হতাশ ছিলাম। অস্বীকার করার কিছু নেই। এই একটা ফরম্যাটে হতাশ হয়ে যাচ্ছিলাম, লুকানোর কিছু নেই। তবে শেষ দুই মাসের কথা যদি বলি, একজনের কথা না বললেই নয়। তিনি হলেন খালেদ মাহমুদ সুজন স্যার। আরেকজন সোহেল স্যার (বিসিবির কোচ, বিপিএলে কাজ করছেন কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সে)। এই দুজন সবসময় বিশ্বাস রেখেছেন আমার ওপর। এই দুজন যেভাবে আমার পাশে থেকেছেন এবং এখনও সাপোর্ট দিয়ে যাচ্ছেন, এটি আমাকে অনেক সাহায্য করেছে। আমার বিশ্বাসটা এসেছে যে আমিও পারব।”

তিনি আরো যোগ করেন, “এবার প্রথম চার ম্যাচে কোনো রানই করিনি। তারপরও খুব মন খারাপ করতে হয়নি। কারণ ওই দুজন খুব সাহায্য করেছেন। চার ম্যাচ খারাপ করার পর সুজন স্যার এসে বললেন যে, ‘তুই এই দলের মূল ক্রিকেটার। তুই অবশ্যই পারবি।’ এই ধরনের কথা আসলে অনেক অনুপ্রাণিত করে। এজন্যই হয়তো আজকের ইনিংসটি খেলতে পেরেছি।”

 

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *