পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস: নিরাপদ থাকবেন যেভাবে

বাংলাদেশে তিনজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া পর্যবেক্ষণে রয়েছেন আরও দুইজন। তাই খামাখা আতঙ্কিত না হয়ে কিছু নিয়ম মেনে চলুন। সঠিক ডায়েট ও নিয়মিত এক্সারসাইজ করে ওজন স্বাভাবিক রাখা সম্ভব। আর নিশ্ছিদ্র নিদ্রা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে। এ ছাড়া ধূমপান, মদ্যপানের মতো বদভ্যাস থাকলে তা ছেড়ে দিতে হবে। মন ভালো রাখতে নিয়ম করে মেডিটেশন করতে পারেন।

১. নিয়ম করে হাত ধুয়ে নিতে হবে। খাবার আগে তো বটেই, নাকে-মুখে-চোখে হাত দেওয়ার আগে অবশ্যই ভাল করে সাবান দিয়ে রগড়ে হাত ধুতে হবে। অসুবিধে থাকলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে ভাল করে হাত ধোয়া দরকার।

২. ইনফ্লুয়েঞ্জা, নিউমোনিয়া-সহ যাবতীয় টিকা নিয়ে রাখা উচিত, বিশেষ করে যাদের কোনও ক্রনিক কোনও অসুখ, যেমন ডায়বিটিস, হার্টের অসুখ, সিওপিডি ও নানা ফুসফুসের অসুখ আছে তাদের তো অবশ্যই। সিনিয়র সিটিজেনদের বাধ্যতামূলক ভাবে ভ্যাকসিন নেওয়া দরকার।

৩. মুখে, চোখে ও নাকে হাত দেওয়ার আগে অবশ্যই হাত ধুয়ে নিতে হবে।খাবার খাওয়ার আগে তো বটেই, নাক ঝাড়া, হাঁচি ও কাশির পর পরই সাবান বা হ্যান্ড স্যনিটাইজার দিয়ে হাত ধুয়ে নেওয়া দরকার।

৪. বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ও সরকারি স্বাস্থ্য দফতর তাদের ওয়েবসাইটে কোভিড–১৯ সম্পর্কে যে সব তথ্য জানাচ্ছেন সে সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকা দরকার।

৫. কাজের প্রয়োজনে বা অন্য কারণে বাইরে যেতে গেলে যে সব নিয়ম মেনে চলা দরকার তা অবশ্যই মেনে চলতে হবে।

৬. নিজে বা নিকটজন অসুস্থ হয়ে পড়লে অবশ্যই চিকিৎসকের দ্বারস্থ হন। যদি জ্বর, সর্দি কাশি, শ্বাসকষ্ট, মাথা ও গা-হাত-পা ব্যথার মত উপসর্গ হয় তবে অবিলম্বে সাবধান হন। বিশেষ করে যদি বিদেশ থেকে আসেন বা বিদেশ থেকে এসেছেন এমন কারও সংস্পর্শে আসেন তবে অবশ্যই ডাক্তারকে সে কথা জানান।

৭. হাঁচি ও কিাশি দেয়ার সময় টিস্যু ব্যবহার করুন। টিন্যু না থাকলে জামার হাতা ব্যবহার করুন।

৮. অসুস্থ লোকজনের কাছ থেকে দূরে থাকুন।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *