পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে ঢাকার কাঁচাবাজার-সুপারশপ বন্ধের নির্দেশ

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ হতে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে রাজধানীর কাঁচাবাজার ও সুপারশপসহ সব ধরনের দোকানপাট বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে ওষুধের দোকানসহ জরুরি সার্ভিসগুলো এ নির্দেশনার আওতামুক্ত থাকবে।

সোমবার ঢাকা মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে সব ইউনিটকে এই নির্দেশনা দেয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে যাতে সুপারশপ এবং কাঁচাবাজার বন্ধের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে পুলিশ কমিশনার কার্যালয় থেকে। এরই মধ্যে ডিএমপির সব বিভাগকে নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে জানানো হয়েছে।

পুলিশ কমিশনার কর্তৃক নির্দেশনা পাওয়ার পর এর মধ্যে মহানগর পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের কর্মকর্তারা সুপারশপগুলোতে গিয়ে বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছেন।

এর আগে পুলিশ সদর দপ্তরের পক্ষ থেকে (রোববার ৫ এপ্রিল) ঢাকাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। বলা হয় পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ঢাকা থেকে কেউ বাইরে যাবে না এবং ঢাকায় কেউ প্রবেশ করবে না।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩৫ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে পুরুষ ৩০ জন ও নারী ৫ জন। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের।

সোমবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন প্রেসব্রিফিংয়ে আইইডিসিআর পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা এ তথ্য জানান।

ফ্লোরা বলেন, ‘নতুন করে দেশে ৩৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১২৩ জন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ জন মারা গেছেন। দেশে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ১২ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৩ জন।’

তিনি আরও বলেন, ‘নুতন শনাক্তের মধ্যে ৪১-৫০ বছরের কোঠায় ১১ জন এবং ২১-৩০ বছরের কোঠায় আছেন ৬ জন। সারাদেশ শনাক্ত ১২৩ জনের মধ্যে সর্বোচ্চ ঢাকা শহর ৬৪ জন। এছাড়া নারায়ণগঞ্জে ২৩ জন এবং এরপরে মাদারীপুরে করোনায় শনাক্তের সংখ্যা বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহের মধ্যে নারায়ণগঞ্জের ১২ জন শনাক্ত হয়েছে।’

ডা. সেব্রিনা বলেন, ‘এক সপ্তাহ আগেই দুদক পরিচালকের করোনা শনাক্ত করা হয়। এরপর তার সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন তাদের কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়। বাকি দু’জন হাসপাতালে আনার পর মারা যান।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে করোনাভাইরাস প্রথম শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। এরপর দিনে দিনে সংক্রমণ বেড়েছে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *