1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন

দুনিয়া মাতাচ্ছে পোকেমন গো !

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৫ জুলাই, ২০১৬
  • ১২২ বার

একটা ভিডিও গেম কিভাবে পুরো দুনিয়াকে মাত করে দিতে পারে তা দেখিয়ে দিল পোকেমন গো । ৬ জুলাই ভার্চূয়াল রিয়েলিটির এই গেমটি মুক্তি পাওয়ার মাত্র কয়েক দিনের মাথায় এ যাবত সমস্ত গেমের রেকর্ডকে ভেঙ্গে অবস্থান করছে শীর্ষে। শুধু কি তাই, পোকেমন গো অ্যাপটি এখন যুক্তরাষ্ট্রে সর্বাধিক ডাউনলোডকৃত অ্যাপের তকমাও জুটিয়ে নিয়েছে।

আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড প্লাটফর্মের জন্য তৈরি নিয়ানট্রিকের এই গেমের মুল আকর্ষন হলো বাস্তুব দুনিয়ার সাথে এর সংযুক্তীকরণ। খেলার নিয়মও খুবই সহজ। গেমটি খেলতে গেমারদের অ্যাপ ডাউনলোডের পর ইনস্টলের সময় (জিপিএস) এর সাথে যুক্ত করে দিতে হবে। এরপর নিজের পছন্দ মত তৈরি করে নিতে হবে নিজের পোকম্যান ট্রেইনারকে। সবকিছু ঠিকভাবে সম্পন্ন হলে এবার খুঁজতে হবে পোকম্যানকে।

অন্য আর দশটা গেমের মত এই গেমের কাঙ্খিত লক্ষ্যবস্তু পোকম্যানের অবস্থান। কিন্তু তা কেবল মোবাইল ফোনের পর্দা জুড়ে নয়। বরং মোবাইলের জিপিএস এবং ক্যামেরাকে ব্যবহার করে পোকম্যানকে খুজঁতে হবে বাস্তুব দুনিয়ায়। আর তাকে হয়ত পাওয়া যাবে আশে-পাশে কোথাও। পেলেই পোকবল দিয়ে নিশানা বানিয়ে আঘাত করতে হবে তাকে। খতম করতে পারলেই পয়েন্ট। এছাড়া গেমকে আরো মনোরঞ্জন করতে টাকা দিয়ে কেনা যাবে পোক কয়েন।

গেমের ধরন যখন এই তখন পোকম্যান গো জ্বরে ভুগবে সারা দুনিয়া এটাই তো স্বাভাবিক। যুক্তরাষ্ট্রে তো সৈনিক, তরুণ থেকে শুরু করে সব বয়সীরাই এখন পোকম্যানকে খুজঁতে ব্যাস্ত।

তবে পোকম্যানের খবর সারাবিশ্ব জানলেও প্রতিষ্ঠানের তরফে এটি আনুষ্ঠানিকভাবে মুক্ত করা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, নিউজিল্যান্ড এবং অষ্ট্রেলিয়াতে।
খুব শীঘ্রই গেম অ্যাপটি পুরো ইউরোপ আর এশিয়াতেও মুক্তি দেয়া সম্ভব হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

কিন্তু তাই বলে বসে নেই গেমাররা। অনেকেই এর ক্র্যাক ভার্সনটি দিয়ে দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর চেষ্টা করছেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog