1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:১৫ পূর্বাহ্ন

ঢাকার রাস্তায় উবার, সহজ হচ্ছে যানবাহন পাওয়া

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৬
  • ২৮৮ বার

প্রতিবেদক : বিভিন্ন দেশে আলোচিত স্মার্টফোন অ‌্যাপভিত্তিক ট‌্যাক্সি সেবার নেটওয়ার্ক উবারের কার্যক্রম শুরু হয়েছে বাংলাদেশে। টেলিকম কোম্পানি গ্রামীণফোনের সঙ্গে মিলে উবার মঙ্গলবার বাংলাদেশের জন‌্য তাদের অ‌্যাপ চালু করেছে, যা ডাউনলোড করা যাচ্ছে অ্যাপল স্টোর এবং গুগল প্লে স্টোর থেকে। ওই অ‌্যাপ ব‌্যবহার করে নেওয়া যাচ্ছে উবারের ব‌্যতিক্রমী ট‌্যাক্সি সেবা।

এই সেবার জন‌্য উবারের নিজস্ব কোনো ট্যাক্সি নেই। ব্যক্তিগত গাড়ি আছে এমন যে কেউ অ‌্যাপ ডাউনলোড করে নিবন্ধনের মাধ‌্যমে উবারের চালক হয়ে যেতে পারেন। একই অ‌্যাপ ব‌্যবহার করে সেবা পাবেন যাত্রীরা।

উবার ম‌্যাপে যাত্রীরা চালকদের তাৎক্ষণিক অবস্থান জেনে নিয়ে তাকে ডাকতে পারবেন। গাড়ির গতি, দূরত্ব, সময় অনুযায়ী উবার ম‌্যাপ তাদের মাণদণ্ড অনুযায়ী ভাড়া হিসাব করে দেবে। বাজে আচরণের জন‌্য যাত্রী বা চালক অ‌্যাপে রেটিং দিতে পারবেন।

অ্যাপল স্টোর বা গুগল প্লে স্টোর থেকে উবার অ্যাপ ডাউনলোড করা যায়। চালক অথবা গ্রাহক- দুইভাবে এই অ্যাপ ব্যবহার করা যায়।

উবার চালক হতে হলে ইমেইল ও ফোন নম্বর ব্যবহার করে নিবন্ধন করতে হবে।

কোনো যাত্রী ট্যাক্সির জন্য কোনো উবার চালককে অ্যাপে রিকোয়েস্ট পাঠালে তিনি আসতে বাধ্য থাকবেন। রিকোয়েস্ট পাঠানোর সঙ্গে সঙ্গে গাড়ির নম্বর, চালকের নাম ও ফোন নম্বর পেয়ে যাবেন তিনি।

কোনো কারণে চালক যাত্রা বাতিল করতে চাইলে জরিমানা গুণতে হবে। ভাড়া হিসাব করা হবে যাত্রী ওঠার পর থেকে।

যাত্রা শেষে নগদ টাকা বা ক্রেডিট-ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে মেটানো যাবে ভাড়া।

উবারের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, “পৃথিবীর সর্ববৃহৎ ‘অন-ডিমান্ড’ এই পরিবহন সেবা মাত্র একটি বাটন চেপে যাত্রীদের নিরাপদ ও আরামদায়ক ভ্রমণ নিশ্চিত করার পাশাপাশি চালক-পার্টনারদের জন্য অর্থনৈতিক উন্নয়নের সুবিধাজনক সুযোগ তৈরি করবে।”

উবারের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের প্রেসিডেন্ট অমিত জেইন বলেন, উবার খুব সাধারণ একটি লক্ষ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল, আর তা হল প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আমাদের শহরগুলোর যানজট ও দূষণ কমানোর পাশাপাশি যাতায়াত ব্যবস্থা আরও সহজ করে তোলা।

উবার দৈনন্দিন পরিবহন ব্যবস্থাকে আরও সহজ করে তুলবে এবং বাংলাদেশের অর্থনীতিতে নতুন সম্ভাবনার সূচনা ঘটাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog