1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৬:১১ পূর্বাহ্ন

সিলেটের বরখাস্ত মেয়র আরিফুল হক কারামুক্ত

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৪ জানুয়ারী, ২০১৭
  • ৭৮ বার

প্রতিবেদক : আরিফুল হক চৌধুরী সিলেট সিটি করপোরেশনের বরখাস্ত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন। বুধবার (৪ জানুয়ারি) বিকেলে তিনি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পান। সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলা সুপার ছগীর মিয়া এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর ) প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ আরিফুল হক চৌধুরী ও হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র জি কে গউছের হাইকোর্টের দেওয়া জামিন বহাল রাখার আদেশ দেন। বেঞ্চের অন্য বিচারপতিরা হলেন সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও মির্জা হোসেইন হায়দার।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কিশোর কুমার বলেন, ‘উচ্চ আদালতের নির্দেশে বুধবার আরিফুল হক চৌধুরী তার ব্যবহৃত পাসপোর্ট আইনজীবীর মাধ্যমে দায়রা জজ আদালতে জমা দেন। ’

আদালত সূত্র জানায়, প্রডাকশন ওয়ারেন্ট (পিডাব্লিউ) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আরিফুল হক চৌধুরীতে আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেন সিলেট দায়রা জজ। বুধবার আসামিপক্ষ আদালতে আরিফুল হক চৌধুরীর জামিনের কাগজপত্র দেখান। আদালত শুনানি শেষে জামিন মঞ্জুর করেন।

বুধবার সকালে একই আদালতে সিলেটের বরখাস্তকৃত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর পাশাপাশি হাজির করা হয় হবিগঞ্জের বরখাস্তকৃত মেয়র জিকে গৌছকে। তারা দু’জনই সাবেক অর্থমন্ত্রী এ এম এস কিবরিয়া এবং আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের জনসভায় বিস্ফোরণ ও হত্যা মামলার আসামি হয়ে কারান্তরীণ। দু’টি ঘটনায় হত্যা ও বিস্ফোরক মামলাসহ মোট চারটি মামলাতেই জামিন পেয়েছেন আরিফুলক হক চৌধুরী।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কিশোর কুমার জানান, ‘আমার কাছে আরিফুল হকের প্রডাকশন ওয়ারেন্ট (পিডাব্লিউ) ছিল। যা শুনানি শেষে জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।’

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার ছগীর মিয়া বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আরিফুল হক চৌধুরীর জামিনের কাগজপত্র কারাগারে এসে পৌঁছালে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়।’

এদিকে সিলেট সিটি করপোরেশনের বরখাস্তকৃত মেয়র ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য আরিফুল হক চৌধুরীর জামিনের খবরে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার এলাকায় ভিড় করছেন দলীয় নেতাকর্মীরা।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ২০ ডিসেম্বর সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র জি কে গউছকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করে আপিল বিভাগে পাঠানো হয়।

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে বোমা হামলা মামলায় গত ১১ ডিসেম্বর সিলেট সিটি করপোরেশনের বরখাস্ত হওয়া মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে ও সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া হত্যার ঘটনায় বিস্ফোরক আইনে করা মামলায় হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র জি কে গউছকে ছয় মাসের জামিন দেন বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মো. আতাউর রহমান খানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ।

এদিকে ২০০৪ সালের ২১ জুন দুপুরে দিরাইবাজারে একটি সমাবেশে বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। এ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দিচ্ছিলেন সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। সেই বোমা হামলায় এক যুবলীগকর্মী নিহত ও ২৯ জন আহত হন। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্ত শেষে ১৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন। ওই সময় উপপরিদর্শক (এসআই) হেলাল উদ্দিন বাদী হয়ে দিরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জের বৈদ্যেরবাজারে জনসভায় গ্রেনেড হামলায় আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়াসহ পাঁচজন নিহত হন। গ্রেনেড হামলার এ ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য (এমপি) আবদুল মজিদ খান বাদী হয়ে হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দু’টি মামলা করেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog