1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:১২ অপরাহ্ন

কমেছে শিশু নির্যাতন, বেড়েছে ভয়াবহতা

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০১৭
  • ১০৬ বার

প্রতিবেদক : সংখ্যার দিক থেকে আগের বছরের তুলনায় ২০১৬ সালে শিশুর প্রতি সহিংসতা ও নির্যাতনের ঘটনা কিছুটা কমেছে। তবে বদলেছে সহিংসতার ধরন; বেড়েছে নির্যাতনের ভয়াবহতা। পাশাপাশি, আশঙ্কাজনকভাবে মা-বাবার হাতে শিশুহত্যা এবং শিক্ষকদের হাতে নির্যাতনের হারও বেড়েছে।

শিশু অধিকার পরিস্থিতি-২০১৬ পর্যালোচনা করে বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরাম (বিএসএফ) এমন চিত্রই তুলে ধরে। আজ মঙ্গলবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে এ তথ্য-প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। জাতীয় ১২টি দৈনিক সংবাদপত্রের প্রকাশিত খবর থেকে শিশুর প্রতি সহিংসতা ও নির্যাতনের এ প্রতিবেদন তৈরি করে।

জাতীয় পর্যায়ে শিশুদের নিয়ে কাজ করে, এমন ২৬৯টি বেসরকারি সংস্থার ফোরাম বিএসএফ। তাদের হিসাব বলছে, ২০১৬ সালে ৩ হাজার ৫৮৯টি শিশু সহিংসতা ও নির্যাতনের শিকার হয়। এর মধ্যে ১ হাজার ৪৪১টি শিশুর অপমৃত্যু ঘটে। যৌন নির্যাতনের শিকার হয় ৬৮৬টি শিশু। ২০১৫ সালে সহিংসতা ও নির্যাতনের মোট ঘটনা ছিল ৫ হাজার ২১২টি।

এ বিষয়ে সংগঠনটির চেয়ারপারসন মো. এমরানুল হক চৌধুরী বলেন, বিচারহীনতা ও বিচারপ্রক্রিয়ায় দীর্ঘসূত্রতার কারণে শিশুদের প্রতি সহিংসতার ঘটনা ঘটেই চলেছে। পাশাপাশি বাড়ছে ঘটনার নির্মমতা।

বিএসএফের তথ্যমতে, ২০১৬ সালে ৬৪টি শিশু মা-বাবার হাতে খুন হয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় ৫৮ শতাংশ বেশি। ২০১৫ সালে এর সংখ্যা ছিল ৪০। পাশাপাশি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষকদের হাতে শিশু নির্যাতনের ঘটনাও বেড়েছে। ২০১৬ সালে ২৬৩টি শিশু এ ধরনের নির্যাতনের শিকার হয়।

এ বিষয়ে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বলেন, মা-বাবা এবং শিক্ষকদের হাতে হত্যা ও নিপীড়নের ঘটনা হচ্ছে সামাজিক অস্থিরতার কারণে। শিশুদের সুরক্ষায় রাষ্ট্রকে আরও দায়িত্বশীল হতে হবে। গণমাধ্যমকেও এ ধরনের ঘটনায় আরও গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেন তিনি।

তবে শিশুহত্যা, আত্মহত্যা ও ধর্ষণের ঘটনা ২০১৬ সালে আগের বছরের তুলনায় কিছুটা কমেছে। গত বছর শিশু খুন হয় ২৬৫টি। আর এর আগের বছর এ সংখ্যা ছিল ২৯২।
২০১৬ সালে ৪৪৬টি শিশু ধর্ষণের শিকার হয়; আর আগের বছর ৫২১টি। শিশু অপহরণের ঘটনাও কমেছে। তবে বেড়েছে নবজাতক চুরির ঘটনা।

অনুষ্ঠানে বক্তারা শিশুর প্রতি যেকোনো সহিংসতা ও নির্যাতনের ঘটনা দ্রুত বিচারের আওতায় নিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও রায় দ্রুত কার্যকরের সুপারিশ করেন। পাশাপাশি, শিশুদের জন্য স্বতন্ত্র শিশু কমিশন গঠনের দাবিও জানান তাঁরা।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog