1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪১ পূর্বাহ্ন

খনিজ অনুসন্ধানে সাগরের ব্লক-১২ পাচ্ছে কোরিয়ান কোম্পানি

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭
  • ১০৯ বার

প্রতিবেদক : গভীর সমুদ্রে বাংলাদেশের ১২ নম্বর ব্লকে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান ও উত্তোলনের কাজ পাচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি কোম্পানি।  বুধবার অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি পোসকো দেইয়ু কর্পোরেশনের সঙ্গে চুক্তি সইয়ের প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছে।

১৯৬৭ সালে দেইয়ু ইন্ডাস্ট্রি হিসেবে যাত্রা শুরু করা কোরিয়ান কোম্পানিটি ১৯৮২ সালে দেইয়ু করপোরেশন নাম নিয়েছিল। ২০১০ সালে পোসকো গ্রুপের সঙ্গে একীভূত হওয়ার পর ২০১৬ সালে কোম্পানির নাম হয় পোসকো দেইয়ু।

১৯৯২ সালে ভিয়েতনামে গ‌্যাস অনুসন্ধানের কাজ শুরু করা পোসকো দেইয়ুর খনিজ অনুসন্ধানে বিশ্বজুড়ে ১৫টি প্রকল্প চলমান। এর মধ‌্যে বাংলাদেশের প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমারেও তাদের প্রকল্প রয়েছে।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ কোরিয়ান কোম্পানিটিকে কাজ দেওয়ার প্রস্তাবটি উত্থাপন করে।

‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) আইন-২০১০’ এর আওতায় এই প্রস্তাব আনা হলে আলোচনার পর তা নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয় বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান জানান।

তিনি জানান, মন্ত্রিসভা কমিটিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ত খনিজ অনুসন্ধান সংস্থা বাপেক্সের বিষয়ে তিনটি প্রস্তাব পাস হয়েছে।

এর মধ্যে রয়েছে- ‘প্রকিউরমেন্ট অব ওয়ান ড্রিলিং অ্যান্ড ওয়ান ওয়ার্কওভার রিগ উইথ সাপোর্টিং ইকুইপমেন্ট ফর বাপেক্স’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় একটি ‘৬০০-৬৫০ এইচপি ম্যাকানিকাল ওয়ার্ডওভার রিগ’ ও ‘রিগ সাপোর্টিং ইকুইপমেন্ট’ কেনার প্রস্তাব। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৭১ কোটি ৬৯ লাখ ৬৪ হাজার টাকা। চীনের একটি কোম্পানি এই কাজ পেয়েছে।

‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) আইন-২০১০’ এর আওতায় তেল-গ্যাস অনুসন্ধান ও উত্তোলনের জন্য বাপেক্স কর্তৃক গৃহিত বিশেষ উদ্যোগের আওতায় এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে।

‘রূপকল্প-৪’ নামে অন্য একটি প্রকল্পের আওতাধীন শাহবাজপুর ১ ও ২ ওয়ার্কওভার কাজ সংশ্লিষ্ট মালামালের ক্রয়ে প্রস্তাবেও সম্মতি দিয়েছে কমিটি।

‘রূপকল্প-৪’ প্রস্তাবের আওতাধীন ভোলা জেলায় অবস্থিত নর্থ-১ ও শাহবাজপুর ইস্ট ১ অনুসন্ধান কূপ ২টি খননের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট পূর্ত নির্মাণ কাজের প্রস্তাবেও সম্মতি দিয়েছে মন্ত্রিসভা কমিটি। এই কাজ পেয়েছে প্রিয়ন্তি কন্সট্রাকশন নামে একটি প্রতিষ্ঠান।

ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের ‘পল্লী বিদ্যুতায়ন সম্প্রসারণের মাধ্যমে ১৫ লাখ গ্রাহক সংযোগ প্রকল্পের আওতায় ডিসট্রিবিউন ট্রান্সফর্মার ক্রয়ের কাজ পেয়েছে মেসার্স টিএস ট্রান্সফর্মার লিমিটেড। তারা ২৩ হাজার ৮৯৩টি ট্রান্সফর্মার সরবরাহ করবে। যার জন্য ব্যয় হবে ১৮০ কোটি ৪৩ লাখ টাকা।

একই প্রকল্পের আওতায় ৫৯ হাজার ৩৮০টি বিদ্যুতের খুঁটি (এসপিসি পোল) ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এই কাজ পেয়েছে মেসার্স চরকা এসপিসি পোল লিমিটেড। দাম ধরা হয়েছে ১১৯ কোটি ১২ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog