1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪০ অপরাহ্ন

মার্চ থেকে দক্ষিণে ২০ বছরের পুরোনো বাস চলবে না : মেয়র খোকন

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭
  • ৭৭ বার

প্রতিবেদক : মার্চ থেকে ২০ বছরের পুরোনো বাস ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকায় চলতে না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন মেয়র সাঈদ খোকন। এছাড়া শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকা কম বয়সী চালকদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার নগর ভবনে যানজট নিরসনকল্পে বাসগুলোকে সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় আনার লক্ষ্যে আয়োজিত বৈঠক শেষে মেয়র বলেন, “বেশকিছু মৌলিক সমস্যা রয়েছে আমাদের এ শহরে। এরমধ্যে অন্যতম বড় সমস্যা হলো যানজট। যানজটের ভয়াবহতা নতুন করে বলার কিছু নাই, যানজট ঢাকার দুঃখ। এই ভোগান্তি থেকে মুক্তি দেওয়ার উদ্দেশ্যেই আমাদের এ উদ্যোগ।

“শহরে ২০ বছরের পুরোনো বাস চলাচল আইনগতভাবে নিষিদ্ধ। কিন্তু আইনের প্রয়োগে একটু কম মনোযোগ থাকার কারণে এসব ভাঙাচোরা, ব্যবহারের অনুপযোগী বাস চলাফেরা করছে। এজন্য ১ তারিখ থেকে এ ধরনের বাস চলতে দেওয়া হবে না।”

শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকা কম বয়সী চালকরা যানবাহন চালানোর সময় দুর্ঘটনা ঘটানোসহ সড়কে বিশৃঙ্খলা তৈরি করছে জানিয়ে মেয়র বলেন, “আইন প্রয়োগে মনোযোগী না হওয়ায় ১২-১৩ বছরের ছোট ছোট ছেলেরা গাড়ি চালাচ্ছে। তারা যেখানে সেখানে গাড়ি রাখছে, বিশৃঙ্খলা তৈরি করছে। এটা শিক্ষাগত যোগ্যতার অভাব। বিআরটিএর আইন অনুযায়ী ন্যূনতম শিক্ষা যদি কোনো চালকের না থাকে তাহলে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে, তাকে বাস চালাতে দেওয়া হবে না।

মেয়র জানান, মতিঝিল, নিউমার্কেট, সদরঘাট এলাকায় সেখানে সেখানে বাস রেখে সড়কে যানজট তৈরি করা হয়।

“যত্রতত্র বাস পার্কিং, এক লেইন, দুই লেইন তিন লেইনও দখল করে বাস রেখে দেয়। অনেক সময় দেখা যায় গাড়ি রেখে চালক কোথায় চলে গেছে। তখন পেছনে গাড়ির জট লেগে যায়।”

বৈঠকে বিআরটিসি এবং বেসরকারি স্টাফ বাসও রাস্তার পরিবর্তে নির্দিষ্ট জায়গায় রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে মেয়র জানান।

“বিআরটিসির স্টাফ বাস যাত্রী নামিয়ে দেওয়ার পর তাদের ডিপোতে চলে যাবে। ডিপোতে জায়গা না হলে সিটি করপোরেশনের নির্দিষ্ট স্থানে চলে যাবে। বেসরকারি স্টাফ বাসগুলোর জন্য নির্দিষ্ট জায়গা ঠিক করা হয়েছে। তারাও তাদের চিহ্নিত জায়গায় চলে যাবে।
“আজিমপুর, নীলক্ষেত ভিক্টোরিয়া পার্ক এলাকার যানজট নিরসনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ সর্বাত্মক ব্যবস্থা নেবে যাতে সেখানে বাস দাঁড়াতে না পারে।”

গুলিস্তান এলাকায় অবৈধভাবে রাখা বিভিন্ন রুটের বাসের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে জানতে চাইলে মেয়র বলেন, ফুলবাড়িয়া ও গুলিস্তানের এ সড়ক বাস রাখার জন্য নয়।

“বাসগুলো যাত্রী নামিয়ে চলে যাওয়ার কথা। কিন্তু তারা নিয়ম মানছে না। তারা সেখানে দীর্ঘক্ষণ বাস রেখে দেয়। এদের ব্যাপারে চিন্তাভাবনা আছে। সবগুলো কাজ একসঙ্গে ধরলে কোনোটাই ভালোভাবে শেষ করা যায় না। এজন্য আমরা ধাপে ধাপে এগিয়ে যাব।”

বৈঠকে ঢাকা মহানগর ট্রাফিকের যুগ্ম কমিশনার মফিজ উদ্দিন আহমেদ, রাজউকের প্রধান প্রকৌশলী মো. আনোয়ার হোসেনসহ বিআরটিএ, বিআরটিসি, ডিটিসিএর পরিচালক, ঢাকা জেলা প্রশাসনের প্রতিনিধি এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশেনর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog