1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:২০ পূর্বাহ্ন

নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে সিরিজ প্রতিশোধের ঘোষণা তুরস্কের

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ, ২০১৭
  • ১১৪ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তুর্কি সংবিধান সংশোধনে গণভোটের প্রচারাভিযানে দেশটির মন্ত্রীদের বাধা প্রদান করার জন্য ডাচ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক প্রতিশোধ ব্যবস্থা ঘোষণা করেছে তুরস্ক।

তুর্কি উপ-প্রধানমন্ত্রী নুমান কুরতোলমাস জানান, আঙ্কারায় ডাচ রাষ্ট্রদূতের ফিরে আসার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে এবং দেশটির সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের সকল রাজনৈতিক আলোচনা স্থগিত করা হয়েছে।

গণভোটের জন্য তুর্কি সমাবেশের প্রচেষ্টায় জার্মানি, অস্ট্রিয়া, সুইজারল্যান্ড এবং নেদারল্যান্ড বাধা প্রদান করে।

এদিকে, প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান ডাচ এবং জার্মানির প্রতি তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে তাদের প্রচেষ্টাকে নাৎসিবাদের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

ইস্তাম্বুলে বিবিসির সংবাদদাতা মার্ক লোয়েন বলেছেন ন্যাটোর দুই মিত্র তুরস্ক ও নেদারল্যান্ডস এখন এক অভূতপূর্ব কূটনৈতিক সংকটে পড়েছে।

এদিকে, জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল নেদারল্যান্ডসের প্রতি তার ‘পূর্ণ সমর্থন এবং সংহতি’ প্রকাশ করেছেন।

সোমবার, ডাচ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নতুন একটি ভ্রমণ সতর্কতা জারি করেছে। তুরস্কে থাকা দেশটির নাগরিকদের প্রতি সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন যাতে নতুন করে ‘কূটনৈতিক উত্তেজনা’ বৃদ্ধি না পায়।

নেদারল্যান্ডের সাধারণ নির্বাচনের মাত্র দু’দিন আগে এই প্রদক্ষেপ নেয়া হল। দেশটিতে অভিবাসন ও ইসলামী চরমপন্থা নিয়ে উদ্বেগের মধ্য এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

নির্বাচনের আগে তুর্কি সমাবেশ ব্লক করে দেয়ার জন্য কারণ হিসেবে নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগের কথা বলেছেন ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট।

যেভাবে উত্তেজনার সূত্রপাত

প্রস্তাবিত র‌্যালির লক্ষ্য ছিল প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তার ওপর ১৬ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য গণভোটে ‘হ্যাঁ’ ভোটের পক্ষে ইউরোপে বসবাসকারী বিপুল সংখ্যক তুর্কিদের উৎসাহিত করা।

উদাহরণস্বরূপ,জার্মানিতে তুর্কি বংশোদ্ভুত তিন মিলিয়নেরও বেশি মানুষ রয়েছে। তাদের মধ্যে আনুমানিক ১.৪ মিলিয়ন তুর্কি নির্বাচনে ভোট দেয়ার জন্য যোগ্য।  কার্যত, তুরস্কের প্রবাসীরা দেশটির নির্বাচনে অন্যতম বড় ভূমিকা পালন করে থাকে।

জার্মানি, অস্ট্রিয়া ও নেদারল্যান্ডস জানিয়েছে, এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে উত্তেজনায় আরো ইন্ধন জোগান পারে। যদিও ফ্রান্সে একটি সমাবেশ হওয়ার পর দেশটির কর্মকর্তারা জানান, এনিয়ে সেখানে কোন হুমকি ছিল না।

ডাচ শহর রোটারডামে সমাবেশে বক্তৃতা দেয়ার ওপর তুরস্কের দুই মন্ত্রীকে বাধা দেয়া হয়। তাদের একজনকে সীমান্ত দিয়ে জার্মানিতে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

তুরস্কের পক্ষ থেকে কী ব্যবস্থা প্রস্তাব করা হয়েছে?

তুরস্কের উপ-প্রধানমন্ত্রী ও সরকারের প্রধান মুখপাত্র কুরতোলমাস বলেন, ‘ডাচ কূটনীতিকদের বা দূতকে বহনকারী প্লেনকে আমাদের আকাশসীমা ব্যবহার কিংবা তুরস্কের ভিতরে ল্যান্ডিং করার অনুমতি দেয়া হবে না।’

ডাচ রাষ্ট্রদূত কিস করনেইলস ভ্যান রিজ বর্তমানে দেশটির বাইরে অবস্থান করছেন। তার অবর্তমানে উপরাষ্ট্রদূত দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি জানান, উচ্চ পর্যায়ের সব রাজনৈতিক আলোচনা স্থগিত করা হবে এবং একটি দ্বিপাক্ষিক বন্ধুত্ব থেকে নেদারল্যান্ডসকে প্রত্যাহার করার জন্য পার্লামেন্টকে পরামর্শ দেয়া হবে।

উপ-প্রধানমন্ত্রী আরো জানান, যতক্ষণ না নেদারল্যান্ডস তার কর্মের জন্য দুঃখ প্রকাশ না করে ততক্ষণ পর্যন্ত এই ব্যবস্থা কার্যকর থাকবে।

এর আগে এরদোগান নেদারল্যান্ডকে একটি ‘ব্যানানা বা কলা প্রজাতন্ত্র বলে মন্তব্য করে দেশটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলোর প্রতি আহ্বান জানান এবং ‘ইসলামফোবিয়া’ বা ইসলামভীতির জন্য পশ্চিমা এসব দেশগুলো দায়ী করেন।

সূত্র: বিবিসি

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog