1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৪৭ অপরাহ্ন

নতুন মহাজোটের বিরুদ্ধে না যেতে নেতাকর্মীদের সতর্ক করলেন এরশাদ

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২ এপ্রিল, ২০১৭
  • ১৩০ বার

প্রতিবেদক : নতুন মহাজোট গড়ার বিরুদ্ধে না যেতে নেতাকর্মীদের সতর্ক করে দিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। তার চাওয়া বুঝে সবাইকে কথা বলতে বলেছেন তিনি। রোববার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে জাতীয় যুব সংহতির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক সভায় তিনি বলেন, “জোটের বিরুদ্ধে কোনো কথা শুনতে চাই না। একটা কথা মনে রাখবে, নমিনেশন কিন্তু দেব আমি এবং মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার। কথা বলার আগে আমি কি চাই তা বুঝে কথা বলবে।”

গণঅভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত সাবেক সামরিক শাসক এরশাদ নিজের গড়া জাতীয় পার্টিকে ‘স্বেচ্ছাচারিভাবে’ পরিচালিত করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। নিজের ইচ্ছেমত দলীয় বিভিন্ন পদে পরিবর্তন আনতে হরহামেশাই দেখা যায় তাকে।

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিষয়ে একক সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনা এসেছেন তিনি। বারবার সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের কারণে নিজে যেমন সমালোচিত হয়েছেন, তেমনি ভাঙ্গনের মুখেও পড়েছে তার দল।

আরেকটি জোট গড়ে একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার পরিকল্পনার কথা জানানোর পর এ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে কয়েকটি ইসলামি দলের সঙ্গে আলোচনায় বসার কথা জানান এরশাদ।

এরই মধ্যে ৩০-৪০টি দলের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে জানিয়ে তিনি বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে দলের সবার প্রতি আহ্বানও জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “জোট করছি। ৩০-৪০ টি দল এসেছে। এদেরকে অবহেলা করার কোনো কারণ নেই। দেশের ৯০ ভাগ মানুষ মুসলমান, তাদের কথা শোনার লোক নেই। অনেক দল আসছে, আমরা তাদের সঙ্গে বসব।”

তবে কবে নাগাদ দলগুলোর সঙ্গে এই আলোচনা শুরু তার কোনো ইঙ্গিত দেননি এরশাদ।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির নেতৃত্বে নির্বাচনী জোট করার কথা বলেছিলেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান। এ উপলক্ষে গত ১৫ মার্চ বাংলাদেশ লেবার পার্টি, আমজনতা পার্টি, গণতান্ত্রিক ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি, জাতীয় হিন্দু লীগ, সচেতন হিন্দু পার্টিসহ ১৫টি দলের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।
এরপর ৩০ মার্চ জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয় ইসলামী মহাজোটের আত্মপ্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের পর এরশাদ তার নির্বাচনী পরিকল্পনার কথা সাংবাদিকদের জানান।

ইসলামী রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে এই মহাজোট গড়ে একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার পরিকল্পনার কথা জানান তিনি।

ওইদিন জাতীয় পার্টির এক নতা বলেছিলেন, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট এবং আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের বাইরে থাকা ইসলামী দলগুলোর সঙ্গে আরেকটি জোট গঠনের আলোচনা চলছে দলের প্রেসিডিয়াম পর্যায়ে।

‘আরেকটি মহাজোট’ বলতে এই দুই জোটের ‘সমন্বয়কে’ বোঝানো হয়েছে বলে জানান এরশাদের দলের এই নেতা।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম ফয়সল চিশতী, সুনীল শুভরায় প্রমুখ।

গণঅভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত সামরিক শাসক এরশাদ ২০০১ সালের নির্বাচনে ইসলামী ঐক্য ফ্রন্ট গড়ে ভোটে অংশ নিয়েছিলেন।

২০০৭ সালে বাতিল হওয়া সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটে যোগ দিয়েছিলেন তিনি।বিএনপির বর্জনের মধ্যে ২০১৪ সালের নির্বাচনে আলাদাভাবে অংশ নিলেও পরে সরকারে যোগ দেয়।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog