1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৪৫ পূর্বাহ্ন

আইসক্রিম বেচলেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী!

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৫ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৭৩ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের প্রভাবশালী তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী কে টি রামা রাও আইসক্রিম বিক্রিতে নেমেছেন। গতকাল শুক্রবার তিনি হায়দরাবাদ-নাগপুর মহাসড়কের পাশে সুচিত্রা আইসক্রিম পারলারে প্রায় ঘণ্টাখানেক আইসক্রিম বিক্রি করেন। এতে আয় হয় সাড়ে সাত লাখ রুপি। খবর এনডিটিভির।
কে টি রামা রাওয়ের ক্রেতাদের বেশির ভাগই ছিলেন ধনী, বিশেষ করে দলীয় নেতারা। এই ক্রেতাদের একজন ৬৩ বছর বয়সী মাল্লা রেড্ডি। তিনি নিজে ছোটবেলায় কলেজে পড়তে পারেননি, তবে এখন রাজ্যে একগাদা প্রকৌশল কলেজ আছে তাঁর। রামার দলের হয়ে বিধানসভার সদস্য তিনি। তাঁকে নিয়ে এত কিছু বলার কারণ হলো, তিনি রামার কাছ থেকে একটি আইসক্রিম কিনেছেন পাঁচ লাখ রুপি দিয়ে।
কে টি রামা রাওয়ের বাবা কে চন্দ্রশেখর রাও তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী। এ পদে থেকেই নিজেকে আমজনতার কাতারে নিচ্ছেন তিনি, কুলি হয়ে। সপ্তাহে দুই দিনের জন্য পয়সার বিনিময়ে কুলির কাজ করবেন এই মুখ্যমন্ত্রী। ‘গুলাবী কুলি দিনালু’ বা ‘গোলাপি শ্রমিকদের দিন’ নামে সপ্তাহব্যাপী চালু করা এক উদ্যোগে নিজেকে শরিক করছেন তিনি। এখন দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে চাইলে যে-কেউ তাঁকে ভাড়ায় খাটাতে পারবেন। কর্মসূচি শুরু হয়েছে গতকাল শুক্রবার থেকে।

শুধু নিজে মুট বইতে নামছেন না তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী; রাজ্যের সব মন্ত্রী, সাংসদ, দলের নেতা ও কর্মীর প্রত্যেককে দুই দিনের জন্য ঘাম ঝরানো এ কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। এর বিনিময়ে তাঁরা যে অর্থ পাবেন, তা জমা পড়বে নিজেদের রাজনৈতিক দল তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতির (টিআরএস) তহবিলে। এ থেকেই দলের বার্ষিক সম্মেলনের খরচের কিছুটা মেটানো হবে।

টিআরএসের সদস্যসংখ্যা এখন ৭৫ লাখের বেশি। ২০১৪ সালে যখন দলটি ভারতের নবীনতম রাজ্য তেলেঙ্গানার ক্ষমতায় আসে, তখন এই সংখ্যা ছিল ৫২ লাখের কম। দলের সদস্যদের কাছ থেকে সদস্য ফি বাবদ প্রায় ৩৫ কোটি রুপি পেয়েছে দলটি, যা দলের ব্যাংক হিসাব সমৃদ্ধ করেছে বলে মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog