1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:১৩ পূর্বাহ্ন

আবার যাত্রী হেনস্তা মার্কিন এয়ারলাইনসে

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৬৪ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আবার যাত্রী হেনস্তার ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজে। ছোট দুই যমজ শিশুকে নিয়ে আমেরিকান এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে উঠেছিলেন এক নারী। শিশুদের বহন করার স্ট্রলার নিয়ে হেনস্তার শিকার হন তিনি। তাঁর কাছ থেকে স্ট্রলার কেড়ে নেন উড়োজাহাজের এক কর্মী। এমনকি তাঁর গায়ে হাতও তোলেন। পরে দুই শিশুসহ তাঁকে নামিয়েও দেওয়া হয় উড়োজাহাজ থেকে।

ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার। পুরো ঘটনাটি ওই ফ্লাইটের আরেক যাত্রী সুরাইন আদ্যন্তয় ভিডিও করেন। অনলাইনে ভিডিওটি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘এক নারীর কাছ থেকে তাঁর বাচ্চাদের স্ট্রলার কেড়ে নেন উড়োজাহাজের কর্মী। তাঁর গায়ে হাতও তোলেন। একটুর জন্য বাচ্চাদের গায়ে আঘাত লাগেনি। এক ভদ্রলোক ওই নারীর হয়ে কথা বলায়, তাঁকেও এক হাত নেন ওই কর্মী।’ দ্রুত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে ভিডিওটি।

সান ফ্রান্সিসকো থেকে ডালাস যাচ্ছিল ফ্লাইটটি। উড়োজাহাজের ভেতরে বিনা কারণেই ওই নারীর ওপর চোটপাট শুরু করেন অভিযুক্ত কর্মী। তাঁর নাম প্রকাশ করেনি আমেরিকান এয়ারলাইনস। কথা-কাটাকাটি হতে হতে একসময় হঠাৎ করে হ্যাঁচকা টান দিয়ে নারীর সঙ্গে থাকা বাচ্চাদের স্ট্রলার কেড়ে নেন ওই কর্মী। দুই যমজ সন্তানকে নিয়ে দিশেহারা ওই যাত্রী কান্নায় ভেঙে পড়েন। ভিডিওতে দেখা যায়, এ ঘটনার প্রতিবাদ করতে এগিয়ে আসেন এক সহযাত্রী। ওই কর্মীকে বলেন, ‘আমার সঙ্গে এমন করলে আমি তোমাকে মারতাম। আর একটু হলে এই বাচ্চারা আঘাত পেত।’ তখন ওই কর্মী রুখে বলেন, ‘আপনি পুরো ঘটনা জানেন না।’ এমনকি ওই সহযাত্রীকে হুমকি দিয়েও বসিয়ে দেন ওই কর্মী। পরে দুই শিশুসহ ওই নারীকে বিমান থেকেই নামিয়ে দেওয়া হয়।

এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর চাপের মুখে ঘটনার নিন্দা করেছে মার্কিন এয়ারলাইনসটি। এক বিবৃতিতে তারা জানায়, ‘ভিডিওতে ওই নারীর সঙ্গে যে ব্যবহার করা হয়েছে, তা একেবারেই আমাদের আদর্শের বিরোধী। আমরা যাত্রীদের সঙ্গে এ রকম ব্যবহার সমর্থন করি না।’ তারা আরও জানায়, ওই কর্মীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। গোটা ঘটনার জন্য ক্ষমাও চেয়ে তদন্ত শুরু করেছে বিমান সংস্থাটি।

এর আগে ৯ এপ্রিল মার্কিন আরেক এয়ারলাইনস ইউনাইটেড এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট থেকে টেনেহিঁচড়ে ভিয়েতনামি বংশোদ্ভূত মার্কিন চিকিৎসক ডেভিড ডাওকে নামিয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটে। ওই উড়োজাহাজের অন্য যাত্রীদের ধারণ করা ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ঘটনাটি জনসম্মুখে আসে। প্রথমে এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ না নিলেও পরে সমালোচনার মুখে ক্ষমা চান সংস্থার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অস্কার মুনোজ। কিন্তু এর কয়েক দিনের মধ্যেই ভুল আসনে বসার অভিযোগে ইউনাইটেড এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজ থেকে নামিয়ে দেওয়া হয় এক হবু দম্পতিকে।

খবর: নিউইয়র্ক টাইমস।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog