1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন

দেশে ৯৬ শতাংশ প্রতিবন্ধী নারী নির্যাতনের শিকার

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৪৬ বার

প্রতিবেদক  :দেশের ৯৬ শতাংশ প্রতিবন্ধী নারী বিভিন্ন ধরনের নির্যাতনের শিকার হন। শারীরিক, মানসিক নির্যাতনের পাশাপাশি এদের বড় অংশ যৌন নির্যাতনের শিকার হন। কেবল বাধা দেওয়ার সক্ষমতা না থাকার কারণে ৭৮ শতাংশ প্রতিবন্ধী নারী এ ধরনের নির্যাতনের শিকার হন।

শনিবার ‘বিচার ব্যবস্থায় প্রতিবন্ধী নারীর প্রবেশগম্যতা’ শীর্ষক সেমিনারে এসব তথ্য জানানো হয়। রাজধানীর একটি মিলনায়তনে এই সেমিনারের আয়োজন করে ডিজঅ্যাবিলিটিজ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (ডব্লিউডিডিএফ)। বিভিন্ন জরিপ থেকে নেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে নির্যাতনের এ চিত্র তুলে ধরা হয়।

সেমিনারে বক্তারা বলেন, প্রতিবন্ধী নারীরা সহিংসতার শিকার হলেও তাদের বেশির ভাগই আইনি সহায়তা পান না। প্রথমত, পরিবার বিষয়টিতে সামাজিক অবস্থান খাটো হবে বলে মনে করে আইনের আশ্রয় নিতে চায় না। দ্বিতীয়ত, দেশের বিচার ব্যবস্থা প্রতিবন্ধী নারীদের জন্য সহায়ক নয়। সেখানে অবকাঠামোগত সমস্যাসহ ইশারা ভাষাবিদও নেই। এ ছাড়া বিচারকদের মানসিকতা, বিচারে দীর্ঘসূত্রতা ও আপসের সংস্কৃতি প্রতিবন্ধী নারীদের বিচার প্রাপ্তিতে বড় সমস্যা।

বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বলেন, আমরা শুধু কথা বলি কেউই দায়িত্ব পালন করছি না, এমনকি মানবাধিকার কমিশনও না। বিচার ব্যবস্থায় নারীর প্রবেশগম্যতা নিশ্চিত করতে নারী বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি করার পাশাপাশি অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী পরিচালক সালমা আলী বলেন, প্রতিবন্ধী নারী ও শিশুদের বিচার ব্যবস্থায় আনতে পরিবার, আইনজীবীসহ সবার মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে। আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাকে আরও আন্তরিক এবং দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে। তাঁদের মামলাগুলো অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে সমাধান করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা আইনে প্রতিবন্ধী নারীদের অধিকারগুলো আরও সুস্পষ্ট করার ওপর জোর দেন। তারা মনে করেন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে প্রতিবন্ধী নারীদের বিচার প্রাপ্তির জন্য নির্দেশনা থাকা উচিত। প্রতিবন্ধীদের সঙ্গে যোগাযোগ সম্পর্কেও নির্দেশনা থাকতে হবে। পাশাপাশি, সবাইকে সচেতন হওয়ার পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, বিচারকদের প্রশিক্ষণ দিতে হবে।

বিচার ব্যবস্থায় প্রতিবন্ধী নারীদের সম অধিকারের দাবি করে ডব্লিউডিডিএফের চেয়ারপারসন শিরিন আক্তার বলেন, প্রতিবন্ধী নারী প্রথম বাধার শিকার হন থানা ও মেডিকেল রিপোর্ট পেতে। এ ছাড়া, অবকাঠামো সুবিধা না থাকায় আদালতে যেতে পারেন না। এ জন্য সুনির্দিষ্ট কার্যপদ্ধতিসহ আদালতকে প্রতিবন্ধীদের গমন উপযোগী করতে হবে।

এতে বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থার আইনজীবী, প্রতিনিধি, প্রতিবন্ধী নারীসহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog