1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha : Sardar Dhaka
  2. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
  3. rafiqul@mohajog.com : Rafiqul Islam : Rafiqul Islam
  4. sardar@mohajog.com : Shahjahan Sardar : Shahjahan Sardar
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০৮:০৯ অপরাহ্ন

হাওরে ক্ষয়ক্ষতি : যুগ্ম সচিবসহ ৪ জনকে দুদকে তলব

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৪ মে, ২০১৭
  • ১০৯ বার

প্রতিবেদক : হাওরে বাঁধ নির্মাণ ও সংস্কারে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত প্রতিবেদনের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিবসহ চার কর্মকর্তাকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কার্যালয়ে ডাকা হয়েছে। যুগ্ম সচিব মো. খলিলুর রহমান ছাড়া বাকিরা হলেন- বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) মহাপরিচালক জাহাঙ্গীর কবির, অতিরিক্ত মহাপরিচালক আব্দুল হাই ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে দুদকের মহাপরিচালক মুনীর চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি দল তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে বলে দুদকের উপপরিচালক (গণসংযোগ) প্রণবকুমার ভট্টাচার্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সুনামগঞ্জের হাওর এলাকায় বাঁধ ভেঙে ফসলের ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে জানতে গতবছর এপ্রিলে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে একটি চিঠি পাঠিয়েছিল দুদক। দশ মাস পর গত ফেব্রুয়ারিতে তারা দুদকে প্রতিবেদন পাঠায়।

“ওই প্রতিবেদনের উপর ভিত্তি করেই তাদের তলব করা হয়েছে।”

গত মাসের শুরুতে টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে দেশের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের বিস্তীর্ণ হাওর এলাকা তলিয়ে যায়। দুর্বল ও অসমাপ্ত বাঁধ ভেঙে প্লাবন ও ফসলহানির পেছনে বাঁধ নির্মাণে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের দুর্নীতিকে দায়ী বলে অভিযোগ উঠেছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী হাওরাঞ্চলের ছয় জেলায় মোট দুই লাখ ১৯ হাজার ৮৪০ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে; ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আট লাখ ৫০ হাজার ৮৮টি পরিবার।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৩০ এপ্রিল সুনামগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত হাওর এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে বলেন, বাঁধ নির্মাণে কারও গাফিলতির প্রমাণ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এর মধ্যে হাওরাঞ্চলের বাঁধ নির্মাণ ও সংস্কার কাজের সঙ্গে যুক্ত পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) তিন প্রকৌশলীকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এরা হলেন- সিলেটের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. নুরুল ইসলাম সরকার, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (উত্তর-পূর্বাঞ্চল) মো. আব্দুল হাই এবং সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আফসার উদ্দীন।

এদিকে হাওর রক্ষা বাঁধের নির্মাণ ও সংস্কার কাজে অনিয়ম, দুর্নীতি ও ধীরগতির অভিযোগ তদন্তে গত মাসে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব মো. খলিলুর রহমানের নেতৃত্বে গঠিত এক সদস্যের কমিটি পুনর্গঠন করা হয়েছে।

পুনর্গঠিত কমিটিতে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মোহাম্মদ আলী খানকে আহ্বায়ক করা হয়েছে। এতে খলিলুরের সঙ্গে পাউবোর চীফ মনিটরিং অফিসার কাজী তোফায়েল হোসেনকে সদস্য এবং মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-প্রধান মন্টু কুমার বিশ্বাসকে সদস্য সচিব করা হয়েছে।

অন্যদিকে সুনামগঞ্জ, সিলেট ও নেত্রকোণা জেলার হাওর এলাকায় আগাম বন্যা ও হাওরের ফসল বিনষ্ট হওয়ার কারণ এবং বাঁধ নির্মাণে অনিয়মের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করতে গত ৯ এপ্রিল পাউবোর অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পূর্বাঞ্চল) এ কে এম মমতাজ উদ্দিনকে আহ্বায়ক করে আরেকটি তদন্ত কমিটি করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 Mohajog