1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha : Sardar Dhaka
  2. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
  3. rafiqul@mohajog.com : Rafiqul Islam : Rafiqul Islam
  4. sardar@mohajog.com : Shahjahan Sardar : Shahjahan Sardar
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন

ভারতীয় গুপ্তচরকে ১৫০ দিন সময় দিল পাকিস্তান

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৬ মে, ২০১৭
  • ১৫০ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতীয় গুপ্তচর কুলভূষণ যাদবকে মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে আবেদন জানাতে ১৫০ দিন সময় দেয়া হবে বলে আন্তর্জাতিক আদালতে জানিয়েছে পাকিস্তান।

পাশাপাশি কুলভূষণ যাদবের মৃত্যুদণ্ড নিয়ে দিল্লির বিরুদ্ধে পাক আইনজীবীদের অভিযোগ, নাটক করার জন্যই আন্তর্জাতিক আদালতের মতো মঞ্চ বেছে নিয়েছে ভারত।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানে আটক সাবেক ভারতীয় নৌসেনা কর্মকর্তা ও গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’-এর চর কুলভূষণ যাদবকে পাক সামরিক আদালতের দেয়া মৃত্যুদণ্ড বাতিল করার আবেদন নিয়ে আন্তর্জাতিক আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে দিল্লি।

সোমবার হেগের আইএসজে এজলাসে শুরু হয়েছে সেই মামলার শুনানি।

আদালতে ভারতের আইনজীবী হরিশ সালভে অভিযোগ করেন, ভিয়েনা কনভেনশন অমান্য করছে পাকিস্তান। তার দাবি, যাদবের অপরাধ স্বীকার করার ভুয়া ভিডিও পেশ করে আদালতকে প্রভাবিত করার চেষ্টায় রয়েছে ইসলামাবাদ।

ভারতের অভিযোগের পাল্টা জবাবে পাকিস্তানের পক্ষে ডিজি দক্ষিণ এশিয়া ও সার্ক মোহাম্মদ ফয়জল বলেন, ‘ভারতের সন্ত্রাসবাদে আতঙ্কিত নই। মনে হচ্ছে ভারত বাড়াবাড়ি করছে। ভারতের আবেদন অপ্রয়োজনীয় এবং বিভ্রান্তিকর। ৭০ বছর আগে স্বাধীন হয় পাকিস্তান এবং প্রতিবেশীদের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে আমরা আগ্রহী।’

পাকিস্তানের পক্ষে আরেক আইনজীবী কুরেশি অভিযোগ করেন, ‘যাদবের পাসপোর্টে কী কারণে মুসলিম নাম রয়েছে, ভারত তার ব্যাখ্যা করেনি। আদালতে পেশ করা আবেদনেও অনেক ভুল রয়েছে। এই কারণে মাননীয় আদালতকে অনুরোধ, অবিলম্বে তা প্রত্যাখ্যান করুন।’

কুরেশি দাবি, ‘২০০৮ সালে হওয়া দ্বিপাক্ষিক চুক্তি মোতাবেক, যাদবকে আইনি সাহায্য করা হবে। মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে আবেদন জানাতে আসামিকে ১৫০ দিন সময় দেয়া হবে। যাদবেরর স্বীকারোক্তির ভিডিও আদালত চাইলে দেখতে পারে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, মৃত্যুদণ্ডে স্থগিতাদেশ দিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালত, যা মিথ্যা। এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে, গোটা বিষয়টি প্রভাবিত করার চেষ্টা চলেছে। তা ছাড়া এ কোনো ফৌজদারি আদালত নয় যে এমন আবেদন করা যাবে।’

তিনি আরো জানান, ‘কুলভূষণের বিরুদ্ধে চরবৃত্তির অভিযোগের কোনো জবাব দেয়নি ভারত। জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হওয়ার মতো কোনো বিষয় আলোচনায় ঠাঁই দিতে পাকিস্তান ইচ্ছুক নয়। যাদব সন্ত্রাসবাদী নয় দাবি করলেও এর সপক্ষেও কোনো প্রমাণ দাখিল করতে ব্যর্থ দিল্লি। ইরান থেকে যাদবকে অপহরণের অভিযোগ হাস্যকর।’

তিনি বলেন, ‘ভিয়েনা কনভেনশন সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করব না। আর ভিয়েনা চুক্তির কোনো ধারাই জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নকারী কোনো গুপ্তচর সম্পর্কে প্রযোজ্য নয়। এই কারণেই যাদবকে ভারতীয় দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করার অনুমোদনে আপত্তি তুলেছে পাকিস্তান।’

শুনানি শেষে আন্তর্জাতিক আদালতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যথা সময়ে রায় ঘোষণার দিন জানানো হবে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 Mohajog