1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:০৬ অপরাহ্ন

হত্যা মামলায় জামিন পেয়েছেন মুশফিকের বাবা

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন, ২০১৭
  • ১৬০ বার

প্রতিবেদক : স্কুলছাত্র মাসুক ফেরদৌস হত্যা মামলায় বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের বাবা মাহবুব হামিদ তারাকে আট সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট। বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের হাই কোর্ট বেঞ্চ চলতি মাসের ৫ জুন তাকে জামিন দিলেও বিষয়টি জানা যায় বৃহস্পতিবার।

জামিনের মেয়াদ আট সপ্তাহ শেষে বিচারিক আদালতে মাহবুব হামিদকে আত্মসমর্পণ করতে হবে বলে  জানিয়েছেন মাহবুব হামিদ তারার আইনজীবী জাহিদুল বারি।

জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেছিলেন এই আইনজীবী। সঙ্গে ছিলেন নাজমুন নাহার বিউটি ও এমদাদুল হক শামীম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জাহাঙ্গীর আলম।

গত ১৩ মে রাতে বগুড়া শহরের মাটিডালী হাজীপাড়া এলাকায় এসওএস হারম্যান মেইনার স্কুল ও কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্র মাসুক ফেরদৌসকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

হত্যাকাণ্ডের ৭২ ঘণ্টা পর মুশফিকের বাবা চাচাসহ ১৬ জনকে আসামি করে মামলা করেন নিহত মাসুকের বাবা এমদাদুল হক এমদাদ।

আইনজীবী জাহিদুল বারি বিডিনিউজটোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “চলতি মাসের ৫ তারিখে হাই কোর্ট মাহবুব হামিদ তারাকে আট সপ্তাহের জামিন দিয়েছেন। আট সপ্তাহ শেষে ওনাকে ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে যেতে হবে।”

তিনি বলেন, “ঘটনার তিন দিন পরে এফআইআর করা হয়েছে। এছাড়া নাঈম নামের একজন আসামি স্বীকারোক্তি দিয়েছে যে, ক্রিকেট খেলা নিয়ে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে এবং নাঈম নিজেই ওই স্কুল ছাত্রকে মেরেছে।”

মুশফিকুরের বাবা মাহবুব হামিদ তারা ও তার ছোট ভাই ওয়ার্ড কাউন্সিলর মেজবাহুল হামিদের সঙ্গে পারিবারিক শত্রুতা এবং মাটিডালি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে বিরোধের কথা মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

এর জেরে পরিকল্পিতভাবে ঘটনার রাতে মাসুককে বাসা থেকে প্রতিবেশী বেলাল হোসেন ফকিরের বাড়িতে তার ছেলে নাইমকে দিয়ে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগে বলা হয়।

এরপর প্রধান আসামি মাহবুব হামিদ তারা ও অপর আসামি লালমিয়া একসঙ্গে মাসুককে জাপটে ধরলে ফয়সল পিছন থেকে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে মাসুককে আঘাত করে। এ আঘাতের কারণে মাসুকের মৃত্যু হয় বলে বাদীর অভিযোগ।

মাহবুব হামিদ তারা এবং তার ছোটভাই মেজবাহুল হামিদ ছাড়া মামলার অন্য আসামিরা হলেন লাল মিয়া, মো. খায়রুল, আল আমিন হেলাল, মো. ছামছুল, মো. তারাজুল, মো. নাইম, মো. অনিক, মো. নাহিদ, কাঞ্চন, মো. ফয়সাল, মো. শাকিল, মো. সাকিব, মো. বিটুল, আল মামুন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog