1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:২৫ অপরাহ্ন

ঢামেকে ফের শিশু চুরির ঘটনায় তোলপাড়

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭
  • ১০৬ বার

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ফের শিশু চুরির অভিযোগ উঠেছে। সোমরাত রাতে মোছা. জিম নামে তিন মাস বয়সী এক শিশুকে চুরি করে নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনায় ঢামেকে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

জানা গেছে, চুরি হয়ে যাওয়া শিশুর বাবার নাম জুয়েল মিয়া ও মায়ের নাম মাজেদা বেগম। তাদের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থানায়।

মাজেদার খালতো ভাই রাফসান জানান, অসুস্থ হওয়ায় গত ৩১ অক্টোবর জুয়েল মিয়াকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নতুন ভবনের ৭০১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। জুয়েলকে দেখভালের জন্য শিশু সন্তান জিমকে নিয়ে হাসপাতালে থাকেন তার স্ত্রী।

সমবার রাতে শিশু সন্তানকে মাঝে রেখে বাবা-মা ঘুমিয়ে পড়েন। রাত তিনটার দিকে মাজেদার ঘুম ভেঙে গেলে তিনি দেখেন তার মেয়ে নাই। তখন তিনি কান্নাকাটি করতে থাকেন। পরে অন্যান্য রোগী, রোগীর স্বজন ও হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও ছুটে আসেন। তবে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও জিমকে কোথাও পাওয়া যায়নি।

রাফসান আরও জানান, ঘটনার পরপরই বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। কে বা কারা শিশুটিকে নিয়ে গেছে তিনি তা বলতে পারেননি।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা বিষয়টি শুনেছি। শিশুটির সন্ধানে চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি।

এর আগে ২০১৬ সালের ২২ সেপ্টেম্বর ঢাকা মেডিক্যাল থেকে খাদিজা আক্তার নামে সাড়ে তিন মাসের এক শিশু চুরির অভিযোগ উঠেছিল। এছাড়া ওই বছরের ৫ মার্চ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে দেড় বছরের শিশু আয়েশাকে চুরি করার সময় পপি আক্তার নামের এক নারীকে হাসপাতালের কর্তব্যরত আনসার সদস্যরা আটক করেন।

তারও আগে ২০১৪ সালের ২১ আগস্ট ভোরে ওই হাসপাতালের নবজাতক ওয়ার্ড থেকে অপরিচিত এক নারী যমজ দুই ছেলেসন্তানের একজনকে কান্না থামানোর কথা বলে কোলে নিয়ে পালিয়ে যান। পরে অবশ্য র্যা ব হাসপাতালের সিসি ক্যামেরা থেকে পাওয়া ছবি সংগ্রহ করে চোরকে গ্রেপ্তার এবং শিশুটিকে জীবিত উদ্ধার করে।

এছাড়া ২০১২ সালের ১৯ মার্চ একই হাসপাতাল থেকে হৃদয় নামের চার বছরের এক শিশুকে চুরি করার সময় নাদিম নামের এক যুবক হাতেনাতে ধরা পড়েন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog