1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৫ অপরাহ্ন

১০ উইকেটে হারলো টাইগাররা

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০১৮
  • ৪৩ বার
Sri Lanka's Thisara Perera, right, celebrates with his teammate Wanindu Hasaranga the dismissal of Bangladesh's Anamul Haque during the Tri-Nation one-day international cricket series in Dhaka, Bangladesh, Friday, Jan. 19, 2018. (AP Photo/A.M. Ahad)

ফাইনালের আগে লিগপর্বের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শোচনীয় পরাজয় বরণ করতে হয়েছে টাইগারদের। ভয়াবহ ব্যাটিং ব্যর্থতার দিনে ২৪ ওভারে মাত্র ৮২ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। ওয়ানডেতে টাইগারদের যেটি নবম সর্বনিম্ন। ৮৩ রানের লক্ষ্যে কোন উইকেট না হারিয়ে  মাত্র ১১.৫ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় হাথুরুর শ্রীলঙ্কা। দলের পক্ষে দানুশকা গুনাথিলাকা ৩৫ রান করে ও উপুল থারাঙ্গা ৩৯ রান করে অপরাজিত থাকেন। এই জয়ে আগামী ২৭ জানুয়ারি (শনিবার) ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে সাকিব-তামিমদের মুখোমুখি হবে চান্দিমাল-পেরেরারা।

উইকেটের দিক থেকে ওয়ানডেতে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট ইতিহাসে এটি সবচেয়ে বড় জয়। এর আগেও তাদের দশ উইকেটের জয় আছে। তারা মোট পাঁচবার দশ উইকেটে জয় পেয়েছে। কিন্তু আজ তারা ২২৯ বল হাতে রেখে জয় তুলে নেয়। দশ উইকেটের জয়ে এর আগে তারা ২০০৩ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২১৭ বল হাতে রেখে জয় তুলে নিয়েছিল।

আজ বাংলাদেশের নিয়মরক্ষার ম্যাচ হলেও শ্রীলঙ্কার ছিল বাঁচা-মরার লড়াই। তাই ফাইনালের আগে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল মাশরাফি। তবে অধিনায়কের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাতে পারেনি দলের টপঅর্ডারের ব্যাটসম্যানরা।

২৪ ওভারে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। ১১ রানে শেষ ৫ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। শেষ ৪ উইকেটের পতন হয় মাত্র ৩ রানে। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৬ রান আসে মুশফিকের ব্যাট থেকে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১০ রান আসে সাব্বিরের।

ইনিংসের শুরুতেই লাকমলের পেসে ফিরেছেন এনামুল হক বিজয়। দীর্ঘদিন পর দলে ফিরেও নিজের প্রতি সুবিচার করতে পারলেন না তিনি। শূন্য রানে লাকমলের বলে বোল্ড হতে হল তাকে। বিজয়ের বিদায়ের পর তামিমের সঙ্গী হয়েছিল সাকিব। তিনিও বেশিক্ষণ থাকতে পারলেন না ক্রিজে। ভুল বোঝাবুঝিতে দ্রুত রান নিতে গুনাথিলাকার থ্রোতে রান আউট হয়ে ফিরলেন সাকিবও।

সাকিবের পর স্কোরকার্ডে ১ রান যোগ হতেই লাকমলের বলে গুনাথিলাকার তালুবন্দী হয়ে ফিরতে হল বাংলাদেশের ভরসার প্রতীক তামিম ইকবালকেও। এপর মুশফিককে নিয়ে চাপ সামলাচ্ছিলেন বিশ্বকাপে টানা দুই শতক করা মাহমুদউল্লাহ। কিন্তু দলীয় ৩৪ রানে লাকমলের বাউন্সারে পরাস্ত হয়ে চামিরার তালুবন্দী হয়ে ফিরেছেন তিনি।

দলীয় ৫৭ রানে পেরেরার বলে ক্যাচ দিয়ে ব্যক্তিগত ১০ রানে সাজঘরে ফিরে যান সাব্বির। ব্যক্তিগত ৭ রানে ফেরেন আবুল হাসান। তার বিদায়ে দলীয় ৭১ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

দলীয় স্কোরবোর্ডে আর মাত্র ৮ রান যোগ হতেই ফিরে যান মুশফিক। ব্যক্তিগত ২৬ রানে আউট হন তিনি। এরপরই ফেরেন নাসির (৩)। ইনিংসের ২৪তম ওভারে ফেরেন মাশরাফি (১)। রুবেল হোসেনও একই ওভারে বিদায় নিলে ৮২ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ।

শ্রীলঙ্কার সুরাঙ্গা লাকমল তিনটি উইকেট পান। ৫ ওভারে ৬ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন চামিরা। থিসারা পেরেরা এবং সানদাকান দুটি করে উইকেট পান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ফল: দশ উইকেটে জয়ী শ্রীলঙ্কা।

বাংলাদেশ ইনিংস: ৮২ (২৪ ওভার)

(তামিম ইকবাল ৫, এনামুল হক বিজয় ০, সাকিব আল হাসান ৮, মুশফিকুর রহিম ২৬, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৭, সাব্বির রহমান ১০, আবুল হাসান রাজু ৭, নাসির হোসেন ৩, মাশরাফি বিন মুর্তজা ১, রুবেল হোসেন ০, মোস্তাফিজুর রহমান ১*; সুরঙ্গা লাকমল ৩/২১, দুশমান্থ চামিরা ২/৬, থিসারা পেরেরা ২/২৭, লক্ষণ সান্দাকান ২/২৪)।

শ্রীলঙ্কা ইনিংস: ৮৩/০ (১১.৫ ওভার)

(দানুশকা গুনাথিলাকা ৩৫*, উপুল থারাঙ্গা ৩৯*; মাশরাফি বিন মুর্তজা ০/১৫, আবুল হাসান রাজু ০/২৫, নাসির হোসেন ০/১৯, মোস্তাফিজুর রহমান ০/১৪, সাকিব আল হাসান ০/১০)।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog