1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৪৭ অপরাহ্ন

ফুটবলে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১ এপ্রিল, ২০১৮
  • ৭২ বার

হংকংয়ে জকি ক্লাব ফুটবল প্রতিযোগিতায় নিজেদের শেষ ম্যাচেও গোল উৎসব করলো বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ দল। চার জাতি টুর্নামেন্টে হংকংকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েই মাঠ ছাড়ে টাইগার বাহিনী।

রবিবার দুপুরে হংকংয়ের সিউ সাই ওয়াংয়ে স্টেডিয়ামে দেশবাসী এই জয় উপহার দেয় তারা। হংকংয়ে চার জাতি জকি ক্লাব নারী ফুটবলে প্রথম ম্যাচে মালয়েশিয়াকে ১০-১ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ দল। ইরানকেও বিধ্বস্ত করেছিল ৮-১ গোলে। অথচ বিশ্ব নারী ফুটবল র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে ৪৪ ধাপ এগিয়ে ইরান।

এদিন দুই অর্ধে দাপুটে ভঙ্গিতে খেলেছেন বাংলাদেশের তহুরা খাতুন। এমনকি হ্যাটট্রিক করেছেন। এছাড়া বাংলাদেশের হয়ে অপর গোল গুলো করেছেন সাজেদা খাতুন, শামসুন্নাহার, মগিনি। এই টুর্নামেন্টের তিন ম্যাচের তিনটিতে জিতে বাংলাদেশের মেয়েরা অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশে ফিরছে।

গোলম রব্বানী ছোটনের দল দুই অর্ধে দিয়েছে তিনটি করে গোল। ম্যাচের মাত্র ৩ মিনিটে তহুরা খাতুনের গোলে এগিয়ে যায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ৩৯ মিনিটে সাজেদা খাতুন ব্যবধান দ্বিগুণ করেছেন। ৪০ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করে দলকে ৩-০ গোলের লিড এনে দেন তহুরা।

দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশ তিন গোল করেছে আট মিনিটের ব্যবধানে। ৬৭ মিনিটে শামসুন্নাহারের গোলে ৪-০ হওয়ার পর আনুচিং মগিনি গোল করে সেই ব্যবধান ৫-০ করেন। ৭৪ মিনিটে তহুরা নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করলে ৬-০ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

চার জাতির এই আসর ছিল লিগ পদ্ধতির। বাংলাদেশ, মালয়েশিয়া, ইরান ও হংকং প্রত্যেকে একে অপেরর মুখোমুখি হয়েছে একবার করে। ৩ ম্যাচে পূর্ন ৯ পয়েন্ট নিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। গেল ডিসেম্বরে অনূর্ধ্ব-১৫ সাফেও অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। সেই একই দলকে হংকংয়ের এই আসরে পাঠিয়েছিল বাফুফে।

১৩, ২৫ ও ২৯ মিনিটে গোল করে হ্যাটট্রিক তহুরা আকতারের। ৩২ মিনিটে আরেক গোল করেন ডিফেন্ডার আনাই মগিনি। বিরতির ঠিক আগ মুহূর্তে শামসুন্নাহার জুনিয়রের গোলে ৫-০ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশ। ৬৩ ও ৬৮ মিনিটে আরো দুইবার লক্ষ্য ভেদ করে হ্যাটট্রিক করেন শামসুন্নাহার জুনিয়রও। ৭৭ মিনিটে বাংলাদেশের হয়ে শেষ গোলটি আনুচিং মগিনির।

এর আগে প্রথম ম্যাচে নারী ফুটবলে এর আগে একবারই মালয়েশিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত সিনিয়রদের ম্যাচে ২-১ ব্যবধানে জয় পেয়েছিল মালয়েশিয়া। কিন্তু এবার বাংলাদেশের জুনিয়রদের সামনে দাঁড়াতেই পারলো না তারা। যাকে বলে ঐতিহাসিক পরাজয়।

২০১৭ সালের ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত অ-১৫ সাফ ফুটবলে ভারতকে হারিয়ে তহুরা-আনুচিংরা হয়েছিল অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন। এবার লাল-সবুজ জার্সিতে হংকং মাতাচ্ছে বাংলাদেশের কিশোরীরা।

গত ডিসেম্বরে ঢাকায় সাফ অনূর্ধ্ব ১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে শিরোপা জেতা বাংলাদেশের মেয়েরা এর আগে এএফসি আঞ্চলিক টুর্নামেন্টে দুবার শিরোপা জিতেছে। ২০১৫ সালে নেপাল থেকে আর ২০১৬ সালে তাজিকিস্তানেও শিরোপা জিতেছিল তারা। হংকংয়ের টুর্নামেন্টে সব প্রতিপক্ষই বাংলাদেশের চেয়ে কাগজে কলমে এগিয়ে ছিল। র‍্যাংকিংয়ে মালয়েশিয়া ২২ ধাপ এগিয়ে, ইরান ৪৪ ধাপ এবং ৩১ ধাপ এগিয়ে হংকং। কিন্তু বাংলাদেশের অপরাজেয় মেয়েদের কাছে এসব কাগুজে হিসাব যেন কোনো ব্যাপারই না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog