1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০২:০৬ অপরাহ্ন

ব্রাজিলের বিশ্বকাপ মিশন শুরু

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২২ মে, ২০১৮
  • ১৭০ বার

আগামী মাসে বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতিমূলক প্রীতি ম্যাচের প্রস্তুতির জন্য ব্রাজিলের তেরেসোপলিস শহরের গ্রাঞ্জা কোমারি ট্রেনিং কমপ্লেক্সে পৌঁছেছে সেলেসাওরা। রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বের খেলার আগে ৩ ও ১০ জুন যথাক্রমে ক্রোয়েশিয়া এবং অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে তিতের শিষ্যরা।

মূলতঃ এর মাধ্যমেই স্থানীয় সময় সোমবার বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতিপর্ব শুরু করলেন নেইমাররা।

আর সবার আগেই এই ট্রেনিং সেশনে যোগ দিয়েছেন সদ্য ইনজুরি কাটিয়ে ওঠা নেইমার। সঙ্গে ছিলেন ডগলাস কস্তা, রেনাটো অগাস্তো এবং থিয়েগো সিলভা। এদিন স্থানীয় সময় বিকালেই তাদের মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।

নেইমারের সুস্থতার জন্য সবচেয়ে বেশি মুখিয়ে ছিলেন কোচ তিতে। অবশ্য গত সপ্তাহেই ফ্রান্সে হালকা অনুশীলন করতে দেখা গিয়েছিল নেইমারকে। গত ফেব্রুয়ারিতে পায়ের ইনজুরির পর দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে ছিলেন এই পিএসজি তারকা।

এদিকে, গ্রাঞ্জা অনুশীলন কেন্দ্রে ভিড় করতে দেখা গেছে স্প্যানিশ সাংবাদিকদের। গোলডটকম বলছে, পিএসজি থেকে নেইমারের রিয়াল মাদ্রিদে আসার বিষয়ে খবর জানতেই উদগ্রীব স্প্যানিশ মিডিয়াগুলো।

স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কার সাংবাদিক ভারচুজেস সানচেজ। তিনি বলেন, ‘নেইমারের শারীরিক সুস্থতার বিষয়টি কাছ থেকে দেখার জন্য এখানে এসেছি। তার ভবিষ্যত লক্ষ্য সম্পর্কে জানাটাও আমার উদ্দেশ্য।’

প্রাক-বিশ্বকাপের পূর্ণাঙ্গ প্রস্তুতির জন্য আগামী বুধবার শিষ্যদের চূড়ান্তভাবে ঝালিয়ে নেবেন কোচ তিতে।

এই প্রস্তুতি সেশনকে ঘিরে আকর্ষণের মূল কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন নেইমার। তবে তিনি কিংবা তার সতীর্থদের কেউই মিডিয়ার সামনে মুখ খুলতে রাজি হননি।

প্রস্তুতি ম্যাচ হলেও ক্রোয়েশিয়া এবং অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ম্যাচদুটিকে মোটেও হালকা করে দেখছে না সেলেসাওরা। বিশ্বকাপের আগের এই ওয়ার্মআপ ম্যাচদুটি সম্পর্কে ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশনের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর এডু গ্যাসপার বলেন, ‘বিশ্বকাপের আগের এই ম্যাচদুটিকে আমরা মূলপর্বের ম্যাচের মতোই গুরুত্বপূর্ণ মনে করি। আমরা তাদের সামর্থ্য নিয়ে দীর্ঘ পর্যালোচনা করেছি। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের চেয়েও ম্যাচদুটি ব্রাজিলের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।’

আগামী ০৩ জুন ব্রিটিশ ক্লাব লিভারপুলের মাঠ অ্যানফিল্ডে ক্রোয়েশিয়া এবং ১০ জুন ভিয়েনায় অস্ট্রিয়ার মোকাবেলা করবেন নেইমার-জেসুস-কৌটিনহোরা।

ইএসপিএন এর সাংবাদিক সিসেরো মেলোর মতে, ‘এটা সত্যিকারার্থেই বিশ্বকাপের শুরু, কারণ এই টুর্নামেন্ট কেবল মাঠের খেলার মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। প্রস্তুতিপর্বটাও এখানে খুব গুরুত্বপূর্ণ। এর মধ্য দিয়েই খেলোয়াড়রা একত্র হয়, একসঙ্গে থাকা-খাওয়া, চলাফেরা শুরু করে। একইসঙ্গে বল এবং বল ছাড়াও তারা পরস্পরের কাছ থেকে বিভিন্ন জিনিস শেখারও সুযোগ পায়।’

তিনি মনে করেন, ‘ক্রোয়েশিয়া এবং অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ম্যাচদুটি ব্রাজিলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কোচ তিতের উচিত সবধরনের দ্বিধা-দ্বন্দ ভুলে চূড়ান্ত প্রস্তুতির দিকে মনোযোগী হওয়া।’

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog