1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৩০ অপরাহ্ন

স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু হলেও চলবে অক্সফোর্ডের ট্রায়াল

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২০
  • ১২১ বার
An employee is seen at the Reference Center for Special Immunobiologicals (CRIE) of the Federal University of Sao Paulo (Unifesp) where the trials of the Oxford/AstraZeneca coronavirus vaccine are conducted, in Sao Paulo, Brazil, June 24, 2020. Picture taken June 24, 2020. REUTERS/Amanda Perobelli

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির করোনা ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে অংশ নেওয়া এক স্বেচ্ছাসেবীর মৃত্যু হলেও ট্রায়াল বন্ধ করা হবে না। এক বিবৃতিতে অক্সফোর্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ট্রায়ালে অংশ নেওয়া একজনের মৃত্যু হলেও নিরাপত্তা নিয়ে এখন আর কোনো উদ্বেগ নেই। তাই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল চালিয়ে যাওয়াই উচিত।

গতকাল বুধবার আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মারা যাওয়া ব্রাজিলের ওই নাগরিককে ভ্যাকসিন নাকি প্লাসবো (শুধু ওষুধ) দেওয়া হয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা সম্ভব হয়নি। তার মৃত্যুর বিষয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। অক্সফোর্ডের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, ট্রায়াল চালিয়ে যাওয়া হবে।

ব্রাজিলের জাতীয় স্বাস্থ্য সংস্থাও (এএনভিআইএসএ) ওই ট্রায়াল চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছে। জানা গেছে, ওই স্বেচ্ছাসেবী অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকা ফার্মাসিউটিক্যালসের বহুল আলোচিত টিকার চূড়ান্ত ধাপের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন।

এর আগে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনের ট্রায়ালে অংশ নেওয়া যুক্তরাজ্যে এক অংশগ্রহণকারী অসুস্থ হয়ে পড়ায় ট্রায়াল সাময়িকভাবে বন্ধ করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রে অক্সফোর্ডের ট্রায়াল গত ৬ সেপ্টেম্বর থেকে বন্ধ আছে। তবে এ সপ্তাহেই তা আবার শুরু হতে পারে।

আলজাজিরা, ওয়াশিংটন পোস্টসহ একাধিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বলা হয়েছে পরীক্ষামূলকভাবে করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালে অংশ নেওয়া কোনো স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু বিশ্বে এটাই প্রথম। ২৮ বছর বয়সী ওই যুবকের দেহে করোনার উপসর্গ দেখা দিয়েছিল।

প্রাথমিকভাবে একটি ছোট নমুনা দলের অংশ হিসেবে ওই স্বেচ্ছাসেবককে কেবল মেনিনজাইটিসের টিকা দেওয়া হয়েছিল। তাই এ পরিস্থিতিতে ভ্যাকসিনটির ট্রায়াল কোনোভাবে বাধাগ্রস্ত হবে না বলে জানিয়েছে ব্রাজিল এবং অক্সফোর্ডের গবেষক দল।

বিশ্বের অনেক দেশেই করোনার ভ্যাকসিন তৈরির কাজ চলছে। বেশ কিছু ভ্যাকসিন ইতোমধ্যেই মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু হয়েছে। যে কয়টি ভ্যাকসিনের কাজ এখন পর্যন্ত এগিয়ে আছে তার মধ্যে অন্যতম অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ব্রাজিল এবং দক্ষিণ আফ্রিকার প্রায় ৪২ হাজার স্বেচ্ছাসেবী এতে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে যুক্তরাজ্যে ১০ হাজার এবং যুক্তরাষ্ট্রে ৩০ হাজার স্বেচ্ছাসেবী রয়েছে। ব্রাজিলেও কয়েক হাজার স্বেচ্ছাসেবী অংশ নিয়েছে।

গত ২ জুন ব্রাজিল সরকার দেশের দুই হাজার স্বেচ্ছাসেবীর দেহে অক্সফোর্ডের তৈরি করোনার এই ভ্যাকসিনটি প্রয়োগের অনুমোদন দেয়। কিন্তু সম্প্রতি এক স্বেচ্ছাসেবীর মৃত্যুতে নতুন করে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog