1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০১:৫৮ অপরাহ্ন

সারা দেশে শ্রদ্ধাভরে ভাষা শহীদদের স্মরণ

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৭ বার

বিনম্র শ্রদ্ধা, যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে ভাষা শহীদদের স্মরণের মাধ্যমে ‘মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ পালন করল জাতি।

মহাযুগের প্রতিনিধিদের পাঠানো প্রতিবেদন তুলে ধরা হলো-

ঝিনাইদহ: যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে ঝিনাইদহে পালিত হয়েছে জাতীয় শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।

একুশের প্রথম প্রহরেই শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে র‌্যালী যোগে আসতে শুরু করে নানা সংগঠন। জড়ো হয় শহীদ মিনারের পাদদেশে।

রাত ১২ টা ১ মিনিটে প্রথমে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এসময় ঝিনাইদহ-২ আসনের সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকী সমি, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম, জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাসসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে একে একে জেলা পুলিশ, বিচার বিভাগ, ঝিনাইদহ জেলা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ নানা শ্রেণি পেশার মানুষ শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

পটুয়াখালী: পটুয়াখালীতে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

একুশের প্রথম প্রহর রাত ১২ টা ১ মিনিটে জেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন জেলা প্রশাসন। এসময় পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ জেলা প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এরপর বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একে একে স্বাস্থ্য বিধি মেনে শহীদ মিনারে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় উপজেলা প্রশাসন, কলাপাড়া প্রেসক্লাব, মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন স্বাস্থ্যবিধি মেনে পৃথক পৃথক ভাবে দিবসটি পালন করেছে। সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ভাবে উত্তোলন করা হয়।

একুশের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মো: মহিব্বুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক, পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম রাকিবুল আহসান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব তালুকদার প্রমূখ।

গাজীপুর: গাজীপুরের যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও মহান একুশে ফেব্রুয়ারি পালিত হয়। দিবসের প্রথম প্রহরে গাজীপুরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম।

এরপর জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির, গাজীপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার (অতিরিক্ত পুলিশ সুপার) একেএম জহিরুল হক, গাজীপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ মো. এনামুল হক, সাধারণ সম্পাদক রাহিম সরকারসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ, গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক মো. কামরুল আহসান সরকার রাসেল, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির উদ্দিন আহমদ এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এ ছাড়া রোববার সকালে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভাওয়াল সম্মেলন কক্ষে আলোচনাসভা, ভাষা সৈনিকদের সংবর্ধনা, শহীদ বরকত পরিবারকে সম্মাননা স্মারক প্রদান, দুপুরে শহিদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মসজিদ, মন্দির ও উপাসনালয়ে বিশেষ মোনাজাত তথা প্রার্থনা, শহীদ বরকতের মায়ের কবর জিয়ারত এবং সন্ধ্যায় ভার্চুয়ালি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণীর আয়োজন করা হয়।

ধামরাই: ঢাকার ধামরাইয়ে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিনম্র শ্রদ্ধা, যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্য শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন উপজেলার সকল সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

রোববার সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে পুষ্প অর্পণ করার পর উপজেলা অডিটোরিয়াম এ শহীদদের স্মরণে আলোচনা সভা করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সামিউল হকের সভাপতিত্বে ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অন্তরা হালদার এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ।

আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাদ্দেস হোসেন, পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম কবির, উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান সিরাজ উদ্দিন, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান সোহানা জেসমিন মুক্তা, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নূর রিফফাত আরা।

জয়পুরহাট: জয়পুরহাটে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়।

প্রথম প্রহরে রাত ১২টা ১ মিনিটে শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রথম পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক মো. শরিফুল ইসলাম ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবির।

এরপর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট, স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক ইশরাত ফারজানা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মুনিরুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তরিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাজ্জাদ হোসেন (সদর), সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন চন্দ্র রায়, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এ ছাড়াও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: বিনম্র শ্রদ্ধায় এবং যথাযোগ্য মর্যাদায় ও বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে মহান অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হচ্ছে।

একুশের প্রথম প্রহরে রাত ১২টা ১ মিনিটে শহীদদের স্মরণে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজ ও পুলিশ সুপার এ এইচ এম আবদুর রকিব। পরে জেলা পরিষদ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর, সিভিল সার্জন, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

রোববার সকালে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

জাসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ও পৌর শাখা, বিএমএ, স্বাচিপ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রধান ডাকঘর, বাংলাদেশ জাতীয় অন্ধকল্যাণ সমিতি চাঁপাইনবাবগঞ্জ শাখা, হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি বালিকা বিদ্যালয়, নবাবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়সহ অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সর্বস্তরের মানুষ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন, প্রভাত ফেরি, আলোচনা সভা, মসজিদে দোয়া মাহফিল এবং মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়।

রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ. কিউ. এম. মাহবুরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় সভায় মূল প্রবন্ধ ‘ভাষা আন্দোলন ও বঙ্গবন্ধু: প্রেক্ষিত ভাষার অন্তর্জগত’ উপস্থাপন করেন ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী মসিউর রহমান।

এ সময় জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম এ সাত্তার, আইন অনুষদের ডিন মো. আবদুল কুদ্দুস মিয়া, প্রক্টর ড. মো. রাজিউর রহমান, বাংলা বিভাগের সভাপতি মো. আব্দুর রহমান, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো. কামরুজ্জামান, প্রচার সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. মিরাজ শিকদার, শিক্ষার্থী সেলিম রেজা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন বাংলা বিভাগের প্রভাষক শামীমা আক্তার।

আলোচনা সভার সভাপতি ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ. কিউ. এম. মাহবুব বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের একটি রাষ্ট্র উপহার দিয়েছেন এবং বাংলা ভাষাকে রক্ষা করেছেন। বঙ্গবন্ধু বাংলা ভাষাকে শক্তিশালী করার জন্য বাংলা একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি আরো বলেন দেশের উন্নতি ও ত্বরান্বিত করতে স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যসূচিতে বাংলা ভাষা চর্চার প্রয়োজন।

এর আগে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ. কিউ. এম. মাহবুবের নেতৃতে একুশের প্রথম প্রহরে রাত ১২টা ১ মিনিটে ক্যাম্পাসের শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় আরো শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদ, শিক্ষক সমিতি, অফিসার্স এসোসিয়েশন, কর্মচারী সমিতি, বশেমুরবিপ্রবি ছাত্রলীগ, সকল হল, বিভিন্ন বিভাগ এবং সংগঠন। বাদ যোহর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে দোয়া মাহফিল ও বিকালে মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog