1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha : Sardar Dhaka
  2. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
  3. rafiqul@mohajog.com : Rafiqul Islam : Rafiqul Islam
  4. sardar@mohajog.com : Shahjahan Sardar : Shahjahan Sardar
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১২:১৭ অপরাহ্ন

ব্যাংকিংয়ে ক্যারিয়ার

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১
  • ৫১২ বার

বর্তমানের চাকরির বাজারে ব্যাংকিং ক্যারিয়ার জীবনে এনে দেয় নিশ্চয়তা। সরকারি-বেসরকরি বিভিন্ন ব্যাংকের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হচ্ছে প্রায়ই।এসব বিজ্ঞাপনে আবেদন করার আগে ব্যাংকার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার প্রস্তুতি নিতে হবে।

অনেক চাকরি প্রার্থীই মনে করেন ব্যাংকে চাকরি মানে শুধু টাকা পয়সার লেনদেন। কিন্তু আসলে এখানে যেমন অর্থসংক্রান্ত অনেক বিশ্লেষণধর্মী কাজ আছে, তেমনি বিপনণ বা গ্রাহকদের সাথে সম্পর্ক ব্যবস্থাপনার মত কাজেরও প্রচুর সুযোগ রয়েছে। তাই বুঝতে হবে কী ধরণের কাজে আপনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। আপনার ব্যক্তিত্বের কোন দিকটি আর দশজনের চাইতে ভাল, কোথায় আপনার দুর্বলতা- এসব কিছু মাথায় রেখে ঠিক করতে হবে ব্যাংকের ঠিক কোন ধরণের কাজের জন্য আপনার আবেদন করা উচিত। ব্যাংকের বিভিন্ন বিভাগ এবং সেগুলোতে কাজের ধরণ সম্পর্কে আগে থেকে জেনে সে অনুসারে চাকরির আবেদন করলে সাফল্যের সম্ভাবনা অনেকগুণ বেড়ে যায়।

ব্যাংকে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে শুধু ফিন্যান্স কিংবা ইকোনমিক্স বিষয়ে তাত্ত্বিক জ্ঞান থাকাই যথেষ্ট নয়; দেশের ব্যাংকিং সেক্টর সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান থাকাও জরুরি। এজন্য আগে থেকে খবরের কাগজ ও বিভিন্ন বিশেষায়িত ওয়েবসাইট থেকে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা, সাম্প্রতিক তথ্য নিয়ে পড়াশোনা করতে হবে। এ ধরণের প্রস্তুতির ফলে আবেদনকারীর নিজের কাছেও পরিষ্কার হয়ে যাবে ব্যাংকিং সেক্টরের কোন বিষয়টি নিয়ে তার বেশি আগ্রহ এবং সে অনুযায়ী আবেদনপত্রে কিংবা ইন্টারভিউয়ে একজন যোগ্য প্রার্থী হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করা সহজ হবে।

অনেকেই নির্দিষ্ট ক্যারিয়ার প্ল্যান না করেই শিক্ষাজীবন শেষ করেন। আসলে ছাত্রজীবনেই ক্যারিয়ার গড়ার প্রস্তুতি নেওয়া উচিত। একাডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি আগে থেকেই ক্যারিয়ার গড়ে তোলার পরিকল্পনা করতে হবে এবং সে অনুযায়ী নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে। পাঁচ কিংবা দশ বছর পরে নিজেকে কোথায় দেখতে চান- ইন্টারভিউ বোর্ডে এ প্রশ্ন অনেকের কাছেই অর্থহীন মনে হতে পারে। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে যারা কর্মক্ষেত্রে সফল, তাদের প্রায় সবাই ক্যারিয়ারে কী অর্জন করতে চান, অন্তত আগামী দু-তিন বছরে কোথায় কী কাজ করতে চান, এসব কিছু অনেক আগে থেকেই পরিকল্পনা করে রাখেন। মনে রাখতে হবে কর্মক্ষেত্রে চাকরির যতটা না অভাব, তার চেয়ে অনেক বেশি অভাব যোগ্য প্রার্থীর। তাই নিজের ক্যারিয়ার সম্পর্কে সময় থাকতেই সচেতন হোন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 Mohajog