পরীক্ষামূলক প্রচার...
Mohajog-Logo
,
সংবাদ শিরোনাম :

গোদাগাড়ীর ৫ জঙ্গির লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন

প্রতিনিধি : রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে জঙ্গি আস্তানায় নিহত পাঁচজনের লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে ‘কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংগঠন রাজশাহী নগরীর হেতেমখাঁ গোরস্থানে তাদের দাফন করে।

বৃহস্পতিবার সকালে গোদাগাড়ীর বেনীপুর আস্তানায় অপারেশন ‘সান ডেভিলে’ পাঁচ জঙ্গি বের হয়ে এসে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকর্মীদের উপর হামলা চালায়। একই সময় তারা বোমার বিস্ফোরণও ঘটায়। এতে ঘটনাস্থলে পাঁচ জঙ্গি ও এক ফায়ার সার্ভিসকর্মী নিহত হন। আহত হন সাত পুলিশ সদস্য।

নিহত ফায়ার সার্ভিসকর্মী মতিনের লাশ বৃহস্পতিবার রাতে গোদাগাড়ীর মাটিকাটা গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়।

কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সংগঠক এনায়েত কবির মিলন বলেন, দুপুরে গোদাগাড়ী থানা পুলিশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গ থেকে লাশগুলো কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের কাছে হস্তান্তর করে। পরে হেতেমখাঁ গোরস্থানে লাশ দাফন করা হয়।

এ সময় পুলিশের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন বলে জানান মিলন।

গোদাগাড়ী থানার ওসি হিফজুল আলম মুন্সি বলেন, নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে লাশ গ্রহণ করতে রাজি না হওয়ায় তাদের লাশ কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনে হস্তান্তর করা হয়। পরে তারা লাশ দাফনের ব্যবস্থা করে।

শনিবার দুপুরে লাশ হস্তান্তরের পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের চিকিৎসক এনামুল হক সাংবাদিকদের বলেন, বোমা ও গুলিতে পাঁচ জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে আশরাফুল ও আলামিন বোমার বিস্ফোরণে মারা যান। তাদের দুইজনের শরীরের সামনের অংশ ঝলসে গেছে।

“বেলী ও কারিমা গুলি ও বোমার স্প্লিন্টারের আঘাতে মারা যান। বেলীর বুকে এবং কারিমার কানের পাশে গুলির চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া দুজনেরই বুকে ও পেটে বেশকিছু বোমার স্প্লিন্টারের চিহ্ন রয়েছে।

“কপালে গুলিবিদ্ধ হয়ে সাজ্জাদ নিহত হয়েছেন।”

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *