1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:১৭ অপরাহ্ন

স্কুল-অ্যাসেমব্লিতে ১০ মিনিট জঙ্গিবিরোধী বক্তৃতা শুনবে শিশুরা

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০১৬
  • ২৭৮ বার

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদসহ অপরাধ প্রবণতা ঠেকাতে স্কুল পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের মননে ধর্মের নামে সন্ত্রাস’র বিরুদ্ধে চেতনা জাগ্রত করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যে কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্কুলগুলোতে অ্যাসেমব্লির সময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে মূল্যবোধ ও মানবতামূলক বক্তৃতা শোনানো হবে। থাকবে জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদবিরোধী বক্তব্যও।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এ বিষয়ে বাংলানিউজকে বলেন, ‘অ্যাসেমব্লিতে জাতীয় সংগীতের পর শিক্ষকরা ১০ মিনিট করে বাচ্চাদের মূল্যবোধের শিক্ষা দেবেন।’

শিক্ষকরাই এই দায়িত্ব নেবেন কারণ তাদের কথাই শিশুদের মনে স্থায়ীভাবে দাগ কাটে। তারাই শিশুদের সহজে মোটিভেট করতে পারেন, বলেন প্রাথমিকশিক্ষা মন্ত্রী।

সোমবার (১৮ জুলাই) সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে বাংলানিউজের সঙ্গে একান্তে কথা বলছিলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সমাজের জন্য আজকে বড় সমস্যা সন্ত্রাসবাদ। এর বিরুদ্ধে শিশুদের মধ্যে ছোটবেলা থেকেই চেতনা জাগ্রত করতে হবে।’

ছোট্টশিশুরা যেভাবে সহজে বুঝতে পারবে সেভাবেই শিক্ষকরা কথাগুলো বলবেন, জানান মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার।

ইতিমধ্যে এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘জঙ্গিবাদ মোকাবেলার জন্য যা যা করা দরকার সেটা সরকার করবে।’

জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টি এবং শিক্ষার্থীদের মাঝে মূল্যবোধ সৃষ্টিতে শিক্ষকদেরও প্রশিক্ষণও দেয়া হবে বলে জানান মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার। তিনি বলেন, ‘তাদেরকেও মোটিভেট করা প্রয়োজন। পরে শিক্ষকরা বাচ্চাদের মোটিভেট করবে এভাবে।’

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ‘সমাজ, ধর্ম, নীতি-নৈতিকতায় অনুমোদন করে না, দেশ সমাজের জন্য কল্যানকর নয় এমন কাজ থেকে বিরত রাখতে এমন কিছু মৌলিক কথা, মূল্যবোধের কথা শিক্ষকরা জাতীয় সংগীতের পরপরই অ্যাসেমব্লিতে বা ক্লাসে যেভাবে পারেন শোনাবেন।

প্রাথমিক পর্যায়েই শিক্ষার্থীদের মাঝে মূল্যবোধের গোড়াপত্তন হওয়া উচিত মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রাথমিক লেভেলটা যদিও ক্লাস ফাইভ পর‌্যন্ত। অষ্টম পর্যন্ত তো এখনো হয়নি। আমি মনে করি এই লেভেলটাতেই নৈতিকতার শিক্ষার ভালোভাবে গোড়াপত্তন হওয়া দরকার। কারণ এখানে তারা সব শেখে।’

মূল্যবোধ ও মানবিকতা শিক্ষার ওপর জোর দেয়ার আহ্বান জানিয়ে মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার বলেন, ‘মূল্যবোধের কথা আমাদের বই-পুস্তকে আছে। নাই এমনটা নয়। কিন্তু এটা ব্যাপারে যতটা মনোযোগ দেয়া হয় তার চেয়ে বেশি দেখা হয় সে ভালো ইংরেজি জানে কিনা, ভালো বাংলা জানে কিনা। ফলে ওই বিষয়গুলো পিছনে পড়ে থাকে।

‘এখনতো হয়ে গেছে কতখানি নম্বর পাবে, কোন গ্রেডে পাশ করবে,’ বলেন প্রাথমিক ও গণ শিক্ষামন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘মূল্যবোধটা বড় ব্যাপার, তুমি যতই বিদ্যান হও না কেন? এই জায়গাতে ঠিক না থাকলে স্কলাসটিকা, নর্থ সাউথ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েও সমাজ ও মূল্যবোধবিরোধী কাজে লিপ্ত হতে পারে’

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog