1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৫:০২ পূর্বাহ্ন

যে কারণে সকালের নাস্তায় তিনটি ডিম খাবেন

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০১৬
  • ২০৬ বার

ডিম সম্পর্কে বেশকিছু নেতিবাচক ধারণা প্রচলিত আছে, মনে করা হয় অতিরিক্ত কোলেস্টেরল থাকার কারণে ডিম অনেক সময় শরীরের জন্য ক্ষতিকর, কিন্তু সত্যটা এই যে ডিমে আছে প্রচুর প্রোটিন, যা আমাদের সারাদিনের কাজ করার শক্তি জোগাতে সাহায্য করে এবং যেকোনো খাদ্যের তুলনায় ডিমে বেশি প্রোটিন বা খাদ্যগুণ থাকে। এখন জেনে নিন প্রতিদিন সকালে ব্রেকফাস্টে তিনটি আস্ত সেদ্ধ ডিম খেলে কি কি উপকার পাবেন।

১. ব্রেকফাস্ট দিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আহার। একটি সেদ্ধ ডিমে থাকে প্রায় ৬০ কিলো ক্যালরি, উচ্চ গুণসমপন্ন প্রোটিন এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় খাদ্যগুণ যা আপনাকে সারাদিন রাখবে চনমনে এবং কাজের প্রতি অধিক মনোযোগী।

২. প্রতি বছর প্রচুর মানুষ আয়রন স্বল্পতাজনিত রোগে ভুগে মৃত্যুবরণ করে, ডিমের কুসুমে আছে প্রচুর আয়রন, রেগুলার তিনটি ডিম আপনাকে আয়রনের প্রয়োজন তো মেটাবেই উপরন্তু মাথাব্যথা, ক্লান্তি, অবসাদ ইত্যাদিও দূর করবে।

৩. ১৯৯০ ফিরে যাই, তখনো চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা বলেছেন ডিম একটি `উচ্চ কোলেস্টেরল` গঠিত খাদ্য (প্রতি কুসুমে ২১০মিগ্রা) যা নিঃসন্দেহে একটি নেতিবাচক প্রচারণা, কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন স্বাস্থ্য সংক্রান্ত গবেষণায় পরিষ্কারভাবে ডিম খাওয়ার প্রতি জোর দেওয়া হয়েছে এবং ডিম বরং হৃদরোগ কমাতে সাহায্য করে তাও প্রমাণ হয়েছে। একটি চমৎকার সস্তা এবং উচ্চমানের প্রোটিনের দারুণ সহজলভ্য উৎস হিসেবে ডিমের জুড়ি মেলা ভার।

৪. ডিমে থাকা ভিটামিন ডি আপনার দাত মজবুত করতে দারুণ সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

৫. আপনি কি জানেন যে প্রতিদিন সকালে টোস্ট এবং তিনটি ডিম নিয়মিত গ্রহণ অন্যান্য সাধারণ ব্রেকফাস্টের চেয়ে ৫০% বেশি তৃপ্তিদায়ক! বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে, যদি আপনি তিনটি ডিম সঙ্গে আপনার দিন শুরু করেন তাহলে এটা মাত্রাতিরিক্ত ওজন বৃদ্ধির উপসর্গগুলো কমায়, তৃপ্তি বৃদ্ধি করে এবং এটা ওজন কমানোর জন্য দারুণ সহায়ক।

৬. চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা দাবি করেন নিয়মিত ডিম খেলে চোখের  ছানি পড়ার ঝুঁকি ২০% পর্যন্ত হ্রাস পায়। ডিমে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস এবং অন্যান্য পুষ্টিগুণ যা চোখের স্বাস্থ্য উন্নতিতে ভূমিকা রাখে।

৭. ডিম আমাদের চুল এবং নখের অনেক জৈবরাসায়নিক ভারসাম্য ঠিক রাখতে সাহায্য করে, চুলের আগা ফাটা, দুর্বল ভঙ্গুর নখ ফেটে যাওয়া থেকে প্রতিরোধ করে।

এর মানে হল যে আপনার স্বাস্থ্যকর খাদ্য তালিকায় ডিম যোগ করাটা মোটেই অস্বাস্থ্যকর নয় বরং নিয়মিত প্রতিদিন সকালে ডিম গ্রহণ আপনার শরীরকে আরো বেশি উপকৃত করবে। সুতরাং আর দেরি নয়, আপনার প্রতিদিনের ব্রেকফাস্টে এখনই ডিম যোগ করুন আর পান আশ্চর্য দারুণ ফলাফল। উপভোগ করুন সুস্বাস্থ্যের আনন্দ!

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog