1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha : Sardar Dhaka
  2. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
  3. rafiqul@mohajog.com : Rafiqul Islam : Rafiqul Islam
  4. sardar@mohajog.com : Shahjahan Sardar : Shahjahan Sardar
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৬:২৭ পূর্বাহ্ন

সাংবাদিক শিমুল হত্যা: রিমান্ড শেষে কারাগারে মেয়র মিরু

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭
  • ৩০৯ বার

প্রতিনিধি: সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলায় সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র হালিমুল হক মিরুসহ ছয়জনের ৫ দিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার সকাল ১১টায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল হক রিমান্ড শেষে আসামিদের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (শাহজাদপুর আমলী) আদালতে হাজির করলে বিচারক হাসিবুল হক তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

শাহজাদপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতের জিআরও আতাউর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আসামিরা হলেন- পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরু, তার ভাই হাবিবুল হক মিন্টু, শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সদস্য কে এম নাসিরুদ্দিন, হযরত আলী, নজরুল ইসলাম ও মানিক।

গত ১৩ ফেব্রুয়ারি দৈনিক সমকালের সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলায় মেয়র মিরুসহ ছয় আসাসিকে পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (শাহজাদপুর আমলী) আদালতের বিচারক হাসিবুল হক।

এরপর গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মিরুর ছোট ভাই হাবিবুল হক মিন্টু ও মিরুর গাড়িচালক শাহিন আলমের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত। এ নিয়ে এই মামলায় মোট আট আসামিকে রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে শাহজাদপুরে আওয়ামী লীগ-সমর্থিত মেয়র হালিমুল হক মিরুর ছোট ভাই হাফিজুল হক শহরের কালীবাড়ি মোড়ে শাহজাদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বিজয় মাহমুদকে মারধর করেন।

এই খবর ছড়িয়ে পড়লে বিজয়ের সমর্থক কলেজছাত্র ও মহল্লার লোকজন একযোগে বেলা ৩টার দিকে মেয়রের বাসায় হামলা চালান। এ সময় মেয়র হালিমুল হক মিরু তার শটগান থেকে গুলি ছোড়েন।

এই ঘটনায় সংবাদ সংগ্রহ করতে সেখানে ছিলেন সাংবাদিক শিমুল এবং তিনি তখন গুলিবিদ্ধ হন। একাধিক গুলি তার মাথা ও মুখে লাগে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে তাকে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। শুক্রবার দুপুরে বগুড়া থেকে ঢাকায় আনার পথে তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় নিহত সাংবাদিকের স্ত্রী নুরুন নাহার বেগম ৩ ফেব্রুয়ারি শাহজাদপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর ৫ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজধানী ঢাকার শ্যামলী এলাকা থেকে ঢাকা মেট্টোপলিটন পুলিশের সহযোগিতায় সিরাজগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশ মিরুকে গ্রেপ্তার করে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 Mohajog