1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha : Sardar Dhaka
  2. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
  3. rafiqul@mohajog.com : Rafiqul Islam : Rafiqul Islam
  4. sardar@mohajog.com : Shahjahan Sardar : Shahjahan Sardar
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৩:২৩ অপরাহ্ন

ট্রাম্পের স্বীকৃতি জাতিসংঘে প্রত্যাখ্যাত হওয়াটা ‘ইরানের জন্য উপহার’

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ১৯২ বার

জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বীকৃতি জাতিসংঘে বিপুলভাবে প্রত্যাখ্যাত হওয়াটা ‘ইরানের জন্য উপহার’ বলে মন্তব্য করেছে ইসরাইলি দৈনিক হারেৎজ।

গত সপ্তাহে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভোটাভুটিতে ট্রাম্পের ঘোষণার বিপক্ষে ভোট দেয় ১২৮ দেশ। অন্যদিকে পক্ষে পড়ে মাত্র ৯ ভোট। এর আগে নিরাপত্তা পরিষদে ট্রাম্পের ঘোষণার বিপক্ষে অবস্থান নেয় ১৪ দেশ। তবে সেই প্রস্তাবে ভেটো দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

বামঘেঁষা প্রভাবশালী হারেৎজ পত্রিকার নিবন্ধে বলা হয়, ট্রাম্পের ঘোষণাকে ‘অকার্যকর’ বলে যেভাবে প্রস্তাবটি পাস হয়েছে, তা ‘বিশ্ববিস্তৃত অনাস্থা ভোট।’ এতে বলা হয়, ভবিষ্যতে ইরান ও অন্য কোনো শত্রু দেশের বিরুদ্ধে ইসরাইল আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কোনো যৌথ প্রয়াস চাইলে তেল আবিবকে ভুগতে হবে।

নিবন্ধে বলা হয়, ইরানের পরমাণু চুক্তি নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, চীন ও রাশিয়ার সঙ্গে আমেরিকার বৈরিতা চলছে। এটা জেরুজালেম সংক্রান্ত প্রস্তাবকেও প্রভাবিত করেছে। এতে আমেরিকার বিরুদ্ধে যে নেতিবাচক মনোভাব গতি সঞ্চার করেছে, তা ইরান নিয়ে আমেরিকার প্রস্তাবেও প্রভাব ফেলতে পারে। তারা ধরে নেবে যে, এটা ট্রাম্পের প্রস্তাব এবং এ কারণে এতে আন্তর্জাতিক বিরোধিতা প্রবল হবে। এটাই ইসরাইলের জন্য ভয়ের কারণ।

ইরান ও বিশ্ব শক্তির মধ্যে স্বাক্ষরিত ঐতিহাসিক চুক্তির ধারা অনুসারে মধ্য জানুয়ারির মধ্যেই ট্রাম্পকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে তিনি ইরানের ওপর নিধেষাজ্ঞা শিথিল করবেন কিনা। চুক্তি অনুযায়ী নিষেধাজ্ঞা শিথিলের বিনিময়ে ইরান ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ সীমিত করবে। ট্রাম্প ওই চুক্তিকে জঘন্য চুক্তি বলে মন্তব্য করেছেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 Mohajog