1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha : Sardar Dhaka
  2. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
  3. rafiqul@mohajog.com : Rafiqul Islam : Rafiqul Islam
  4. sardar@mohajog.com : Shahjahan Sardar : Shahjahan Sardar
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ইরান বিরোধী বৈঠক ব্যর্থ

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৬ জানুয়ারী, ২০১৮
  • ১৭০ বার

আমেরিকার চাপের মুখে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে অনুষ্ঠিত ইরান বিরোধী বৈঠক ব্যর্থ হয়েছে। ইরানে সাম্প্রতিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি সমর্থন ঘোষণার লক্ষ্যে ট্রাম্প প্রশাসন ওই বৈঠকের উদ্যোগ নিয়েছিল। কিন্তু পরিষদের বেশিরভাগ সদস্যদেশ মার্কিন উদ্যোগের বিরোধিতা করে।

শুক্রবার রাতে অনুষ্ঠিত বৈঠকের শুরুতে জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন প্রতিনিধি নিকি হ্যালি বলেন, ইরানে নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের প্রতি ওয়াশিংটনের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। কিন্তু ফরাসি রাষ্ট্রদূত ফ্রাঁসোয়া দেলাত্রে ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের বিরোধিতা করে বলেন, ইরানের সাম্প্রতিক ঘটনাবলী আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তাকে হুমকির মুখে ঠেলে দেয়নি।

বৈঠকে চীনের রাষ্ট্রদূত ইরানের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের আহ্বান জানিয়ে বলেন, একটি দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা নিরাপত্তা পরিষদের উচিত হবে না।

এ ছাড়া, রাশিয়ার রাষ্র্ধদূত ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া বলেন, ‘আজকের বৈঠকে যে বিষয়টি উত্থাপন করা হয়েছে তার সঙ্গে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের কোনো সম্পর্ক নেই। নিরাপত্তা পরিষদের ভূমিকা দুর্বল হয়ে যায় এমন কোনো কাজ করা আমেরিকার উচিত নয়।’

বলিভিয়া, হল্যান্ড, কুয়েত ও কাজাখস্তানসহ আরো কয়েকটি দেশ ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের বিরোধিতা করে। শেষ পর্যন্ত বৈঠক থেকে ইরানের ব্যাপারে কোনো প্রস্তাব পাস করা সম্ভব হয়নি।

সম্প্রতি দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদ জানিয়ে ইরানের কয়েকটি শহরে কিছু মানুষ বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এ সময় বিদেশি মদদপুষ্ট কিছু সুযোগ সন্ধানী লোক শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকে সহিংস রূপ দেয়ার চেষ্টা করে।

আমেরিকা, ইহুদিবাদী ইসরাইল ও সৌদি আরবের গণমাধ্যমগুলো এই বিশৃঙ্খলার খবর ফলাও করে প্রচার করে এবং এসব দেশের কর্মকর্তারা ইরানে গোলযোগ সৃষ্টিকারীদের প্রতি প্রকাশ্যে সমর্থন ঘোষণা করেন।

কিন্তু বুধবার থেকে ইরানের রাজপথের চেহারা সম্পূর্ণ পাল্টে যায়। গোলযোগ সৃষ্টিকারী মুষ্টিমেয় কিছু মানুষের নিন্দা জানিয়ে সারাদেশের গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোর রাস্তায় শান্তিপূর্ণ শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। এসব শোভাযাত্রা থেকে সরকারের প্রতি সমর্থন জানানোর পাশাপাশি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী ও তাদের বিদেশি মদতদাতাদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।

এবার ইরানজুড়ে মার্কিনবিরোধী বিশাল সমাবেশে সরকার সমর্থকরা
সরকারবিরোধী বিক্ষোভের মুখে থাকা ইরানে এবার দেশজুড়ে যুক্তরাষ্ট্রবিরোধী মিছিল ও বিক্ষোভ করেছে সরকার সমর্থকরা।

শুক্রবার সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ হয় তেহরানের ইমাম খোমেনি মুসাল্লা মসজিদের সামনে। এখানকার মুসল্লিরা যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে এবং মার্কিন বিরোধী স্লোগান দেয়।

তেহরান ছাড়াও ইসফাহান, তাবরিজ, কেরমান, বুশেহের, জিলান প্রদেশসমূহে মার্কিন বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল করে ইরানবাসী। তারা ইসরাইল ও যুক্তরাষ্ট্রের ধ্বংস কামনা করে স্লোগান দেয়।

রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতি, বেকারত্ব এবং সরকারের অনিয়মের বিরুদ্ধে ২৪ ডিসেম্বরে ইরানের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর মাশাদ ও কাশমারের কয়েক হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে আসে।

পরবর্তীতে এ বিক্ষোভ তেহরান, কেরমান শাহ, সানান্দাজ, জানযান, আহবাজ, আরাক প্রদেশের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে সরকার বিরোধী বিশেষ করে দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনি বিরোধী সহিংস আন্দোলনে রূপ নেয়।

আন্দোলনকারীদের সমর্থন এবং ইরানের সরকারের প্রতি হুশিয়ারি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একাধিক টুইটারের পর দেশটির অভিযোগ, যুক্তরাষ্ট্র আন্দোলনকারীদের উস্কিয়ে দিয়েছে। আর ইন্ধন যোগাচ্ছে ইসরাইল ও সৌদি আরব।

এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে চলা এ আন্দোলনে সরকারি বাহিনীর সাথে সংঘর্ষে নিহত হয় ২০ জনেরও অধিক, এতে নিহত হয় একজন পুলিশ কর্মকর্তাও। এ ছাড়াও এক হাজারেরও অধিককে গ্রেফতার করে ইরান কর্তৃপক্ষ।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 Mohajog