1. sardardhaka@yahoo.com : adminmoha :
  2. mohajog@yahoo.com : Daily Mohajog : Daily Mohajog
  3. nafij.moon@gmail.com : Nafij Moon : Nafij Moon
রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:২২ অপরাহ্ন

প্রস্তুত থাকতে বললেন ইমরান খান

মহাযুগ নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯
  • ১১৩ বার

পাকিস্তান সীমান্তে জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মহম্মদের (জেইএম) প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে ভারতীয় বিমানবাহিনীর হামলার পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তার সশস্ত্র বাহিনী ও সাধারণ নাগরিককে সতর্ক করেছেন। তিনি বলেছেন, সশস্ত্র বাহিনী ও সাধারণ নাগরিককে সব ধরনের ঘটনার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। তারা প্রস্তুত আছে কি-না তাও জিজ্ঞেস করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ইমরান খান এ কথা বলেন। এর আগে ভারতের হামলার পর সকালে জরুরি বৈঠকের ডাক দেন পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী। দেশের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তা-প্রতিনিধিদের নিয়ে তিনি বৈঠকে বসে চলমান কাশ্মীর সংকট নিয়ে আলোচনা করেন বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রের বরাতে বলছে। আর এরপরই ইমরান খান দেশের সশস্ত্র বাহিনী এবং নাগরিকদের যেকোনো ঘটনার জন্য প্রস্তুত থাকা দরকার বলে উল্লেখ করেন।

এর আগে পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার জবাবে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় বিমান বাহিনীর হামলায় অন্তত ৩০০ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া ট্যুডে। দেশটির বিমানবাহিনীর একটি সূত্রের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া ট্যুডে বলছে, সীমান্ত রেখার কাছে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি ও লঞ্চ প্যাডে বিমান হামলা চালানো হয়েছে।

ওই সূত্র বলছে, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৩টার দিকে ভারতীয় বিমান বাহিনীর চালানো হামলায় অন্তত ২০০ থেকে ৩০০ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। যুদ্ধবিমান মিরাজ-২০০০ সহ অন্যান্য জঙ্গিবিমান থেকে কাশ্মীরে সন্ত্রাসীদের আস্তানায় অন্তত এক হাজার কেজি ওজনের বোমা ফেলা হয়েছে।

ভারতীয় বিমান বাহিনী আকাশ সীমা লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ করেছেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর।

এক টুইট বার্তায় গফুর বলেছেন, মুজাফফরাবাদ সেক্টর থেকে পাকিস্তানে অনুপ্রবেশ করেছে ভারতীয় বিমান বাহিনীর বিমান। বালাকোট সেক্টরে বোমা ফেলেছে। তবে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতের এই হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে দাবি করেছেন তিনি।

কাশ্মীরে ভারতের এই হামলা প্রায় ২১ মিনিট ধরে চলমান ছিল। এতে সন্ত্রাসীদের আস্তানা ধ্বংস হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী। মুজাফফরাবাদ থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরের বালাকোট সেক্টরেও হামলা হয়েছে।

২০১৬ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর সীমান্ত পেরিয়ে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালিয়েছিল ভারতীয় সেনাবাহিনী। ওই সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর এবার নতুন করে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে বিমান চালানো হয়েছে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলওয়ামায় ভয়াবহ আত্মঘাতী হামলায় ভারতের সিআরপিএফের কমপক্ষে ৪০ সেনা নিহত হয়েছেন। ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদ। এরপর থেকেই ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Mohajog